বাসস দেশ-৪১ : দুর্নীতি করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না : দুদক কমিশনার

510

বাসস দেশ-৪১
দুদক-গণশুনানি
দুর্নীতি করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না : দুদক কমিশনার
ঢাকা, ২৭ মার্চ ২০১৯ (বাসস): দুর্নীতি প্রতিরোধে সরকারের সদিচ্ছা রয়েছে উল্লেথ করে দুর্নীতি দমন কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেছেন, দুর্নীতি করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।
তিনি বলেন, সরকারি সেবা প্রদানে অনিয়ম, দুর্নীতি , হয়রানি এবং দীঘসূত্রিতা কোনো অবস্থাতেই সহ্য করা হবে না। এসব ক্ষেত্রে কমিশন শুন্য সহিষ্ণুতা নীতি অবলম্বন করছে ।
কমিশনার আজ নওগাঁর সাপাহার উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে দুদকের ১০৮ তম গণশুনানিতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
ক্ষুধামুক্ত ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের কোনো বিকল্প নেই জানিয়ে দুদক কমিশনার বলেন, তৃণমূল পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছে সেবা গ্রহণের জন্য সহজ-সরল সাধারণ মানুষই বেশি আসেন। তাদের হয়রানি এবং দুর্নীতিমুক্তভাবে সরকারি সেবা প্রদান প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আইনি দায়িত্ব। এ দায়িত্ব পালনে কেউ দুর্নীতি-অনিয়মে জড়ালে কঠোর আইনি পরিণতি ভোগ করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার দুর্নীতি ও হয়রানিমুক্ত সেবা প্রদানের জন্য সিটিজেন চার্টার প্রবর্তন করেছে, সরকারি সেবা প্রদানে ডিজিটালাইজেশন করা হচ্ছে।
কমিশনার বলেন, দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিকে টেকসই করতে হলে দুর্নীতি নির্মূল করতেই হবে। তাই কমিশন দুর্নীতি দমনে যেমন গুরুতা¡রোপ করেছে তেমনি নতুজ প্রজন্মের মাঝে সততা ও নৈতিকতা বিকশিত করার জন্য সততা সংঘের মাধ্যমে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।
তিনি বলেন দেশের প্রায় ২৭ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা সংঘ গঠন করা হয়েছে। পাশাপাশি উত্তম চর্চার বিকাশে দেশের প্রায় ২ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্রেতাবিহীন সততা স্টোর স্থাপন করা হয়েছে।
স্থানীয় জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমান এর সভাপতিত্বে গণশুনানিতে ভূমি, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, কৃষি, সমাজ সেবাসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের বিষয়ে ৪০ টি অভিযোগ উপস্থাপিত হয়। এর মধ্যে তাৎক্ষণিকভাবে ৮টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে। ২৫টি অভিযোগ ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।
বাসস/সবি/এফএইচ/২০৩০/এইচএন