বাসস দেশ-৪১ : বঙ্গবন্ধু ছিলেন একজন আপোষহীন নেতা : খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

284

বাসস দেশ-৪১
খালিদ মাহমুদ-আলোচনা
বঙ্গবন্ধু ছিলেন একজন আপোষহীন নেতা : খালিদ মাহমুদ চৌধুরী
ঢাকা, ২৫ মার্চ, ২০১৯ (বাসস) : আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু গণতন্ত্রকে আলিঙ্গন করেছেন, গঠণমূলক বিষয়ে কথা বলেছেন, ন্যায়ের ব্যাপারে কঠোর ছিলেন, তিনি ছিলেন একজন আপোষহীন নেতা। জনগণকে সম্পৃক্ত করে বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করেছেন।
আজ সোমবার রাজধানীর বিআইডব্লিউটিএ ভবনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে বিআইডব্লিউটিএ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান এম মাহবুব-উল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নৌপরিবহন সচিব মোঃ আবদুস সামাদ, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ উদ্দিন আহমেদ ভূইয়া, বিআইডব্লিউটিএ’র সদস্য গোলাম মোস্তফা, নুরুল আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ১৯৪৭ সালে পাকিস্তানের স্বাধীনতা লাভের পর পরই বঙ্গবন্ধু বুঝতে পেরেছিলেন যে, পাকিস্তানীদের সাথে থাকলে বাঙ্গালীর অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবেনা। তখন থেকেই তাঁর মাধ্যমে বাঙ্গালীর স্বাধিকারের আন্দোলন দানা বাঁধতে থাকে। পাকিস্তানিরা এক বছরের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে।
তিনি বলেন, ৬৬-তে বঙ্গবন্ধু যখন ৬ দফা আন্দোলনের ঘোষণা দেন, তখন আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই তাকে ছেড়ে চলে যায়। ৬৬ এর ৬ দফা এক দফা আন্দোলনে রুপ নিতে আড়াই বছর সময় লাগে। তখন ছাত্রলীগই সেই আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে। বঙ্গবন্ধু স্বাধিকার ও অধিকার আদায়ে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে ১৯৭০-এ নির্বাচনে একক নেতায় পরিণত হন।
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাধীকার ও অধিকার আন্দোলনে থেকে বঙ্গবন্ধু ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা আন্দোলনের দিকে ধাবিত হন। বঙ্গবন্ধু ২৬শে মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণা করেন। তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে ধীরে ধীরে স্বাধীনতার আন্দোলনের দিকে নিয়ে যান- যা পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল।
খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, যারা দেশের জন্য আতœত্যাগ করেছেন, জীবন দিয়েছেন তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করকে হবে। বাঙ্গালী বীরের জাতি। এ জাতিকে নিয়ে আমরা গর্ববোধ করতে পারি। আমরা যুদ্ধ করে, রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছি। বিলাসিতা কোন জীবন নয়।
তিনি বলেন, ‘ত্যাগের মাধ্যমেই দেশের উন্নয়ন করবো। দেশের উন্নয়নের কাজ করবো- তা না হলে আমরা ৩০ লাখ শহীদের কাছে অপরাধী হয়ে থাকবো। প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসার প্রতিদান আমরা কাজের মাধ্যমে দিব। সকল প্রতিবন্ধকতা জয় করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করবো।’
বাসস/সবি/বিকেডি/২০৪৫/জেহক