গ্রন্থমেলা : বৃষ্টিতে ছন্দপতন, শেষ দিন আজ

307

ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : একুশে গ্রন্থমেলার ২৭তম দিনে এসে ছন্দপতন ঘটেছে মেলার। বিকাল তিনটা থেকে শুরু হলেও বৃষ্টি ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে গ্রন্থমেলা সন্ধ্যা ৬ টায় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। মেলায় গতকাল নতুন বই এসেছে ২৪৮টি।
এদিকে মাসব্যাপি অমর একুশে গ্রন্থমেলার শেষ দিন আজ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক ফেব্রুয়ারি এই গ্রন্থমেলার উদ্বোধন করেন।
আগামীকাল সন্ধ্যা ৬ টায় গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চে সমাপনী অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ প্রদান করবেন একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। প্রতিবেদন উপস্থাপন করবেন ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯’-এর সদস্য-সচিব ড. জালাল আহমেদ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি। সভাপতিত্ব করবেন বাংলা একাডেমির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।
বাংলা একাডেমির এদিনের সূচি থেকে জানাগেছে অনুষ্ঠানে কবি নির্মলেন্দু গুণকে কবি জসীমউদ্দীন সাহিত্য পুরস্কার ২০১৯ প্রদান করা হবে। এছাড়া অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ উপলক্ষে বাংলা একাডেমি পরিচালিত চারটি গুণীজন স্মৃতি পুরস্কার- চিত্তরঞ্জন সাহা স্মৃতি পুরস্কার-২০১৯, মুনীর চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার ২০১৯, রোকনুুজ্জামান খান দাদাভাই স্মৃতি পুরস্কার-২০১৯, শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার ২০১৯ প্রদান করা হবে। এছাড়াও গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চ এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাপনী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চে সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে অমর একুশে গ্রন্থমেলার সমাপনী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।রাত ৯টা ১০ মিনিটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেও আয়োজন করা হয়েছে গ্রন্থমেলার সমাপনী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।
অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২৭তম দিনে গতকাল বিকেল ৪ টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় বইমেলা : উদ্যোগ ও অর্জন শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন শাহিদা খাতুন। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ওসমান গণি, রেজানুর রহমান, ফরিদ আহমদ দুলাল এবং জালাল আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম।
লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন প্রকাশিত গ্রন্থ বিষয়ে আলোচনায় অংশ নেনÑ রশিদ আসকারী, মাহবুব রেজা, সুমনকুমার দাশ, শাহেদ ইকবাল এবং শোয়েব সর্বনাম।
এদিকে বহুমাত্রিক লেখক হুমায়ুন আজাদের উপর মৌলবাদী চক্রের সন্ত্রাসী হামলার বার্ষিকীতে একুশে গ্রন্থমেলায় আজ বিকেলে তাঁকে স্মরণ করা হয়। লেখক-পাঠক-প্রকাশকদের যৌথ উদ্যোগে বাংলা একাডেমির বর্ধমান হাউসের তথ্যকেন্দ্রের সামনে আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। বক্তব্য রাখেন কবি মুহাম্মদ সামাদ, সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরী, প্রকাশক মাজহারুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন প্রকাশক ওসমান গনি।
বক্তারা বলেন, হুমায়ুন আজাদের হত্যাচেষ্টার বিচার অবিলম্বে বাস্তবায়ন এবং তাঁর আদর্শে মৌলবাদ-জঙ্গিবাদ এবং সাম্প্রদায়িকতামুক্ত সমাজ-রাষ্ট্র গঠনের মাধ্যমেই তাঁকে যথাযোগ্যভাবে স্মরণ করা হবে।
কবিকণ্ঠে কবিতা পাঠ করেন- কবি আনিসুল হক, শাহজাদী আঞ্জুমান আরা, বিমল গুহ, মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক, আশরাফ জুয়েল, মাসুদ পথিক, নওশাদ জামিল। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী জি এম মোর্শেদ এবং সিদ্দিকুর রহমান পারভেজ।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী অদিতি মহসিন, কামাল আহমেদ, মো. রেজাউল করিম, অসীম দত্ত, সেমন্তী মঞ্জরী এবং ডালিয়া সুলতানা।