জয় দিয়ে বিপিএল শেষ করলো প্লে-অফ থেকে ছিটকে পড়া সিলেট সিক্সার্স

528

ঢাকা, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : জয় দিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসর শেষ করলো প্লে-অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে না পারা সিলেট সিক্সার্স। টুর্নামেন্টের ৪০তম ও লিগ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ সিলেট সিক্সার্স ২৯ রানে হারায় চিটাগং ভাইকিংসকে। এই জয়ে ১২ খেলা শেষে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠস্থানে থেকে বিপিএল শেষ করলো সিলেট। পয়েন্ট টেবিলের নীচের দিকে থাকায় প্লে-অফে খেলার সুযোগ পায়নি সিলেট। তবে আগেই প্লে-অফে খেলার সুযোগ পাওয়া চিটাগং ১২ খেলায় ১৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে তৃতীয়স্থানে।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচে ব্যাট হাতে ভালো শুরু করতে পারেনি সিলেট। ৩৭ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারায় তারা। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে ফ্লেচারের হাফ-সেঞ্চুরির সাথে মিডল-অর্ডার দুই ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান ও পাকিস্তানের মোহাম্মদ নাওয়াজের ছোট-ছোট ইনিংসে বড় স্কোরের পথ পেয়ে যায় সিলেট।
সাব্বির ২৫ বলে ৩২ ও নাওয়াজ ২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১৯ বলে ৩৪ রান করেন। তবে হাফ-সেঞ্চুরি করা ফ্লেচার ৫৩ বলে ৬৬ রানের নান্দনিক ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসে ৬টি চার ও ২টি ছক্কা ছিলো। ফলে ৫ উইকেটে ১৬৫ রানের সংগ্রহ পায় সিলেট। চিটাগং-এর দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড় হার্দাস ভিলিওয়েন ২৯ রানে ৪ উইকেট নেন।
জয়ের জন্য ১৬৬ রানের টার্গেটে চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে ইনিংস শুরু করেন দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যামেরন ডেলপোর্ট ও মোহাম্মদ আশরাফুল। এবারের আসরে নিজের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন অ্যাশ। সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। ২ বল খেলে শুন্য হাতে সিলেটের পেসার তাসকিন আহমেদের বলে আউট হন তিনি। ব্যাট হাতে ব্যর্থ ডেলপোর্টও। তিনি অবশ্য ২ রান করেছেন।
৩ রানে ২ উইকেট হারানো চিটাগং’কে শুরুর ধাক্কা ভুলিয়ে দিতে চেষ্টা করেন মিডল-অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলী ও অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় উইকেটে ৪২ রান দলকে এনে দেন তারা। ২৭ বলে ২৭ রান করা ইয়াসির ফিরে গেলেও, মোসাদ্দেক নিয়ে আবারো জুটি গড়ার চেষ্টা করেন মুশফিক।
ক্রিজে গিয়ে মারমুখী মেজাজে ছিলেন মোসাদ্দেক। ২টি করে চার ও ছক্কায় প্রতিপক্ষ বোলারদের উপর চাপ সৃষ্টি করেন মোসাদ্দেক। তবে মোসাদ্দেককে ২৫ রানে বিদায় দিয়ে সিলেটকে খেলায় ফেরানোর পথ দেখান পেসার এবাদত হোসেন। এরপর দলীয় ১১০ রানে মুশফিকও আউট হলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয় সিলেট। শেষ পর্যন্ত চিটাগংকে ১৩৬ রানেই অলআউট করে দেয় সিলেট। দলের পক্ষে ৩টি করে চার ও ছক্কায় ৩২ বলে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন মুশফিক। -এর এবাদত ১৭ রানে ৪ উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
সিলেট সিক্সার্স : ১৬৫/৫, ২০ ওভার (ফ্লেচার ৬৬, নাওয়াজ ৩৪, ভিলজিওন ৪/২৯)।
চিটাগং ভাইকিংস : ১৩৬/১০, ১৮.৩ ওভার (মুশফিক ৪৮, ইয়াসির ২৭, এবাদত ৪/১৭)।
ফল : সিলেট সিক্সার্স ২৯ রানে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : এবাদত হোসেন(সিলেট সিক্সার্স)