বাসস দশ-১৪ : কুষ্টিয়ার চারটি আসনে নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

173

বাসস দশ-১৪
কুষ্টিয়ায়-ভোট
কুষ্টিয়ার চারটি আসনে নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন
কুষ্টিয়া, ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস): কুষ্টিয়ার চারটি আসনে নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। এই চার আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে ২৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
৬৬টি ইউনিয়ন ও ৬টি পৌরসভা নিয়ে কুষ্টিয়ার ৪টি নির্বাচনী আসনের ৫৬৫টি স্থায়ী কেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছেন ১৪ লাখ ৫৯ হাজার ৮৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ৭ লাখ ২৮ হাজার ৫ জন, মহিলা ভোটার রয়েছেন ৭ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৩ জন।
কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশা নৌকা প্রতিক নিয়ে এবং বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতিক রেজা আহম্মেদ বাচ্চু মোল্লা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এখানে জাতীয় পাটি থেকে মো. শাহারিয়ার জামিল, বিএনএফ’র মোঃ আশরাফুল আলম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে নাজমুল হুদা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। সীমান্তবর্তী এ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের ১২৬টি স্থায়ী কেন্দ্র রয়েছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন ৩ লাখ ৬১ হাজার ১৯ জন, এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৬৭ হাজার ৭৪৮ জন, মহিলা ভোটা রয়েছেন ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩৭১ জন।
কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) নির্বাচনী এলাকায় মহাজোট প্রার্থী জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু নৌকা প্রতিক নিয়ে এবং ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে জাপা ( কাজী জাফর) থেকে আহসান হাবিব লিংকন, এনপিপি মোহাম্মদ সোহাগ আহম্মেদ, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের আনোয়ার হোসেন বুলবুল, সিপিবি’র মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ থেকে মারফত আলী মাষ্টার, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ মোজাম্মেল হক ও বিএনএফ থেকে মোঃ সাইফুল ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এই আসনে ২টি পৌরসভা ও ১৯টি ইউনিয়নে মোট ১৫৮টি কেন্দ্রে মোট ভোটা রয়েছেন ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৭৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯৯ হাজার ২০৮ জন, মহিলা ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ৪৭৯ জন।
কুষ্টিয়া-৩- সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। তার প্রতিদ্বন্দী হিসেবে সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী জাকির হোসেন সরকার ধানের শীষ প্রতীক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এ ছাড়াও এ আসনে বাসদ’র শফিউর রহমান শফি, বিএনএফ’র মোঃ আসাদুল হক, এনপিপি’র উজ্জল আহম্মেদ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ আমিনুল ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
১টি পৌরসভা ও ১৩টি ইউনিয়নে ১৩৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটা রয়েছেন ৩ লাখ ৭২ হাজার ৮৪৮ জন, এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ৮৪ হাজার ২২৭ জন, মহিলা ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬২১ জন।
সাংস্কৃতিক জনপদ হিসেবে খ্যাত কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ নৌকা প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এখানে বিএনপির প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ মেহেদী আহম্মেদ রুমী ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।
এ ছাড়াও এ আসনে বিএনএফ’র আওলাদে পীর জাদা ইদ্রিস, জাতীয় পার্টি থেকে আশরাফুল হক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে এনামুল হক প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
২টি পৌরসভা ও ২০টি ইউনিয়ন নিয়ে এ নির্বাচনে আসনে মোট কেন্দ্র রয়েছে ১শ ৪৭টি। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন ৩ লাখ ৫১ হাজার ২৩৪ জন, এর মধ্যে পুরুষ ভোটা রয়েছেন ১ লাখ ৭৬ হাজার ৮২২ জন, মহিলা ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ৭৪ হাজার ৪১২ জন।
জেলায় নির্বাচনকে অবাধ ও সুষ্ঠু করতে ১৫ প্লাটুন বিজিবি ও ৬৪৭ জন সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতিটি নির্বাচনী এলাকায় বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল অব্যাহত রয়েছে।
এ ব্যাপারে জেলা রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন জানান, কোন প্রকার আচরণ বিধি লঙ্ঘন ও নির্বাচন বহির্ভুত কর্মকান্ড করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ৪ টি আসনের নির্বাচনী প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন।
এদিকে নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে কুষ্টিয়া সদরসহ দৌলপুর, মিরপুর-ভেড়ামারা, কুমারখালী-খোকসায় নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা জমজমাট হয়ে উঠেছে। সকাল-সন্ধ্যা প্রতিটি সড়কে, বাজারে, পাড়া মহল্লায় চলছে নৌকা, হাত পাখা, ধানের শীষের প্রচার-প্রচারণা, মাইকিং, মিছিল, উঠান বৈঠক করছেন প্রার্থীরা।
বাসস/সংবাদদাতা/বিকেডি/১৮১০/কেএমকে