বাসস দেশ-২২ : এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশ’র আত্মপ্রকাশ

341

বাসস দেশ-২২
এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশ-আত্মপ্রকাশ
এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশ’র আত্মপ্রকাশ
ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : সম্পাদকীয় প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা ও মর্যাদা রক্ষা এবং সাংবাদিকতা পেশার উৎকর্ষ বাড়ানোর লক্ষ্যে ‘এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশ’ নামে একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশ করেছে।
সংবাদ প্রকাশনা ও পরিবেশনার সঙ্গে যুক্ত সব ধরনের মাধ্যমের সম্পাদকীয় নেতাদের নিয়ে নতুন এ সংগঠন যাত্রা শুরু করলো।
শুক্রবার এক সভায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে আহ্বায়ক করে সংগঠনের প্রথম কমিটি করা হয়েছে। যেখানে যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে রয়েছেন জনকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায় এবং গাজী টেলিভিশন ও সারাবাংলা ডটনেটের প্রধান সম্পাদক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা।
আহ্বায়ক কমিটিতে সদস্য হিসেবে রয়েছেন- একাত্তর টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক মোজাম্মেল বাবু, ডিবিসি টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম, এটিএন বাংলার প্রধান নির্বাহী সম্পাদক জ.ই.মামুন, এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী সম্পাদক মুন্নী সাহা, এশিয়ান এইজের এডিটোরিয়াল বোর্ডের চেয়ারম্যান শোয়েব চৌধুরী, বাংলা ট্রিবিউনের সম্পাদক জুলফিকার রাসেল।
নতুন এ সংগঠনের পরিচয় দিতে গিয়ে এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশ-এর আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে তৌফিক ইমরোজ খালিদী বলেন, ‘সংবাদ প্রকাশনা শিল্পে যারা সম্পাদকীয় নেতৃত্ব দেন তাদের সংগঠন এটি। কাজেই এ সংগঠনের মূল কাজ হবে একটা কোড অব এথিক’স অর্থাৎ নৈতিকতার মানদন্ড নিয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করা, যেটি এখন একেবারেই অনুপস্থিত।
‘সংগঠনের আরেকটি কাজ হল-সম্পাদকীয় প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা ও স্বাধীনতা রক্ষা করা এবং সাংবাদিকদের পেশাগত উৎকর্ষ বৃদ্ধির জন্য কাজ করা।’
স্বদেশ রায় বলেন, ‘তথ্য প্রযুক্তির পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে গোটা পৃথিবীতে গণমাধ্যমের পরিবর্তন এসেছে। এই সময়ে গণমাধ্যমকে আরও অনেক বেশি দায়িত্ব নিয়ে চলতে হয়। সেই দায়িত্ব যাতে সঠিকভাবে হয়, সেজন্য আমরা এই কাজটা করবো।’
সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, ‘আমাদের কাছে মনে হয়েছে বাংলাদেশে স্বাধীনতার এত বছর পরে গণমাধ্যমের যতটা বিকাশ হয়েছে তারপরেও সম্পাদকীয় প্রতিষ্ঠান দাঁড়ায়নি। সম্পাদকীয় প্রতিষ্ঠান তৈরি করার ইচ্ছা থেকেই আমরা একত্রিত হয়েছি।’
জুলফিকার রাসেলের সমন্বয়ে বাংলা ট্রিবিউনের কার্যালয়ে এডিটরস গিল্ড’র প্রথম সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

বাসস/সবি/কেসি/এমএমবি/২০১৫/কেএমকে