বাসস দেশ-২৮ : বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট মিডিয়ায় আছে, ভোটের মাঠে নেই : কাদের

416

বাসস দেশ-২৮
কাদের-নির্বাচন
বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট মিডিয়ায় আছে, ভোটের মাঠে নেই : কাদের
নোয়াখালী, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট এখন মিডিয়ায় আছে, ভোটের মাঠে নেই। তারা কিছু হলেই মিডিয়া ও সাংবাদিকদের দ্বারস্থ হয়। জনসমর্থন নেই বলে তারা ভোটের মাঠে যেতে পারছে না। বিএনপির লোকজনদের শীতের অতিথির সাথে তুলনা করে তিনি বলেন, এরা শীত আসলে আসে, শীত শেষে চলে যায়।
তিনি বলেন, “বিএনপির লোকজন শীতের অতিথি পাখির মতো। এরা শীত আসলে আসে, শীত শেষে চলে যায়। ধানের শীষেও এখন বিষে পরিণত হয়েছে।”
মন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় তাঁর নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) এর কবিরহাটের নবগ্রাম বাজারে এক নির্বাচনী পথসভায় এসব কথা বলেন।
নৌকা বঙ্গবন্ধুর প্রতীক, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতীক, মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক ও উন্নয়নের প্রতীক। এই বিজয়ের মাসে নৌকার জয় হবেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, দলীয় লোক দিয়ে নয়, নোয়াখালী খালের পুন:খননের কাজ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে হচ্ছে। অধিকাংশ এলাকার মানুষ শতভাগ বিদ্যুৎ পেয়েছে। সড়কের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।
তিনি বলেন, নোয়াখালীতে ফোরলেনের কাজ চলমান রয়েছে। আগামীতে আরো বড় বড় উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেওয়া হবে। যার সুফল সকল দলের লোকজন ভোগ করবে।
প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর নাম নিয়ে কাদের বলেন, তিনি বলেছিলেন একমাসের মধ্যে রাজনীতির চেহারা বদলে যাবে। কিন্ত এখন আমরা কি দেখতেছি। কই কোনো চেহারাতো বদল হলো না। মানুষ এখন ভোটের আমেজে আছে, ভোট উৎসবের অপেক্ষায় আছে।
তার ২২ বছরের মন্ত্রীত্বকালে কি উন্নয়ন হয়েছে প্রশ্ন করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাঁর আমলে বিদ্যুৎ ছিল না। ছিল শুধু খাম্বা আর খাম্বা। তারা দলীয়করণেই ব্যস্ত ছিলেন। দলের লোক ছাড়া অন্য কারো জন্য কোনো উন্নয়ন করেনি। অন্যদিকে আমরা দলের বাহিরেও সর্বস্তরের মানুষের জন্য উন্নয়ন করেছি।
পথসভায় কবিরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন রুমি, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জহিরুল হক রায়হান সহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
বাসস/সংবাদদাতা/কেসি/২০২৮/কেএমকে