বাসস ক্রীড়া-১০ : দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ জয়ের ‘ভাল সম্ভাবনা’ দেখছেন পাকিস্তান কোচ আর্থার

241

বাসস ক্রীড়া-১০
আর্থার-দ:আফ্রিকা
দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ জয়ের ‘ভাল সম্ভাবনা’ দেখছেন পাকিস্তান কোচ আর্থার
সেঞ্চুরিয়ন, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮(বাসস):পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কোচ মিকি আর্থারের বিশ্বাস দক্ষিণ আফ্রিকায় তার দলের টেস্ট সিরিজ জয়ের ‘ভাল সম্ভাবনা’ আছে। সেঞ্চুরিয়নে বক্সিং ডে টেস্ট দিয়ে শুরু হবে দক্ষিণ আফ্রিকা-পাকিস্তান সিরিজ।
তিন টেস্ট, পাঁচ ওয়ানডে এবং তিন টি-২০ ম্যাচের পুর্নাঙ্গ সিরিজ খেলতে নিজ দেশ দক্ষিণ আফ্রিকায় পৌঁছে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এ সব কথা বলেন আর্থার।
টেস্ট ক্রিকেটে অভিজ্ঞতা খুব বেশি না থাকলেও তার দল ভাল একটা শুরুর মাধ্যমে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে আপসেট ঘটাতে পারে মনে করছেন পাকিস্তান কোচ।
আর্থার বলেন, ‘আমাদের তারুণ্য নির্ভর চমৎকার একটি দল আছে যারা দলগতভাবে ভালকরতে পারে।
‘সাদা বলে আমরা অবিশ্বাস্য রকমের ভাল খেলছি, ৫০ ওভারে দল ভাল অবস্থায় আছে, টি-২০তে আমরা ব্যতিক্রমধর্মী পারফরমেন্স করছি। তবে টেস্ট এই মুহূর্তে আমরা ভাল একটি দলে পরিণত হওয়ার চেষ্টা করছি। দলটি তরুণ তবে চিত্তাকর্ষক।
‘প্রকৃত অর্থেই এখানে আমাদের ভাল একটা সুযোগ আছে।’
প্রোটিয়াদের সমস্যায় ফেলার মত ভাল বোলিং আক্রমণ বিভাগ সফরকারী পাকিস্তান দলের আছে। তবে এখানকার ফাস্ট ও বাউন্সি পিচে তাদের ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা দিতে হবে।
সংযুক্ত আরব আমিরাতের তুলনায় তার ব্যাটসম্যানরা দক্ষিণ আফ্রিকান কন্ডিশনে ব্যাটিংটা উপভোগ করবে জানান আর্থার। এ বছরের শুরুতে ইংল্যান্ডর মাটিতে সিরিজ ড্র করা থেকেও তারা উদ্বুদ্ধ হতে পারেন বলেও মনে করছিন তিনি।
দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্মগ্রহণকারী অস্ট্রেলিয়া দলের সাবেক কোচ আর্থার বলেন, ‘সব কন্ডিশনেই আমাদের পেস আক্রমণ দক্ষ। অনায়াসেই ২০ উইকেট নেয়ার বোলিং আক্রমণ আমাদের আছে। তবে আমাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে ৩৫০-৪০০ রান করা।’
‘আমরা স্কোর বোর্ডে ভাল সংগ্রহ করতে পারলে যে কোন কন্ডিশনেই ২০ উইকেট নেয়ার ক্ষমতা অমাদের আছে। আমি সব সময় বলে আসছি সংযুক্ত আরব আমিরাতে যে ধরনের পারফরম করেছে উপমহাদেশের বাইরে আরো ভাল ব্যাটিং করার মত ব্যাটিং লাইন আপ আমাদের রয়েছে।
‘ইংল্যান্ডে তারা অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। দলে বেশ কয়েক জন মেধাবী তরুণ ব্যাটসম্যান আছে, যারা যে কোন বোলিংয়ের বিপক্ষে ভাল খেলতে সক্ষম। এ ধরনের কন্ডিশনে তারা খুব বেশি ভাল খেলে।’
বাসস/স্বব/১৮২০/মোজা/এএমটি