ডেল্টা প্ল্যানের বাস্তবায়ন বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করবে : নারায়ন চন্দ্র চন্দ

266

ঢাকা, ৩ অক্টোবর ২০১৮ (বাসস) : মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেছেন, একনেক অনুমোদিত ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ বাস্তবায়নে উপকূলীয়, হাওর এবং সমুদ্র অঞ্চলে অর্থনৈতিক কার্যক্রম বাড়বে এবং বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করতে বড় ভূমিকা রাখবে।
মঙ্গলবার রাতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন-বাংলাদেশের (আইইবি) সেমিনার হলে আইইবি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ আয়োজিত “উপকূলীয় উন্নয়ন: সুযোগ, চ্যালেঞ্জ ও কৌশলগত পরিকল্পনা” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেন, ‘সম্প্রতি একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডেলটা প্ল্যান ২১০০ মাস্টারপ্ল্যানের অনুমোদন দিয়েছেন। এটার বিশেষ গুরুত্ব থাকলেও দীর্ঘদিন এ বিষয়ে কোন মাস্টারপ্ল্যান ছিল না। প্রধানমন্ত্রীর দূরদৃষ্টি সম্পন্ন সিদ্ধান্তের কারণে এটা অনুমোদন করা সম্ভব হয়েছে।’
সেমিনারে অন্য বক্তারা বলেন, বাংলাদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরিত করতে হলে উপকূলীয় ও হাওর অঞ্চলের উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। আর সমুদ্র সম্পদ আহরণের মাস্টার প্ল্যান করতে হবে। এ সম্পদ আহরণ করা সম্ভব হলে দেশ অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধশালী হবে।
সেমিনারে আইইবি’র সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী শেখ তাজুল ইসলাম তুহিনের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন ভাইস-চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মিজানুর রহমান। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন-পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী এবং আইইবি’র পুরকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুর রহমান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের ডেপুটি টিম লিডার সিইআইপি-১ প্রকৌশলী মো. হাবিবুর রহমান।
অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন, আইইবি’র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মো. মাহফুজুর রহমান এবং আইইবি’র ভাইস-প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. নুরুজ্জামান ।
সেমিনারে আরো বলা হয়, স্বাধীনতার পর থেকে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল এবং হাওর অঞ্চল অবহেলিত ছিল। এবার সরকার অনুমোদিত ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ মাস্টার প্ল্যানের মাধ্যমে সেসব এলাকার উন্নয়ন হবে। দেশকে উন্নত করতে হলে উপকূলীয় অঞ্চলকে বিশেষ প্রাধান্য দিয়ে কাজ করতে হবে। আর সমুদ্র সম্পদ আহরণেও বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।