‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর-২০১৮ উদ্বোধন’

274

ঢাকা, ৩ অক্টোবর, ২০১৮ (বাসস) : ‘২০৩০ সালের মধ্যে সকলের জন্য নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন লক্ষমাত্রা পূরণে সরকার বদ্ধপরিকর।’
আজ বিকালে রাজধানীর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর মিলনায়তনে ‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর-২০১৮’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা জানান।
‘টেকসই উন্নয়ন ও স্বাস্থসম্মত স্যানিটেশন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা দেশে মাসব্যাপী সচেতনতামূলক ও উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচী বাস্তবায়নের মাধ্যমে শতভাগ স্বাস্থসম্মত স্যানিটেশন অর্জনের লক্ষ্যে ‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর- ২০১৮’ পালিত হবে।
স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব রোকসানা কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি এদোয়ার্ড বেইবেডার। এসময় ওয়াটার এইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. মোঃ খাইরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিনিয়র সচিব বলেন,বাংলাদেশ উন্মুক্ত স্থানে মলত্যাগের হার প্রায় শূণ্য শতাংশে নামিয়ে আনার ক্ষেত্রে অভাবনীয় সফলতা দেখিয়েছে। এই সাফল্য অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশসমূহ দৃষ্টান্ত হিসেবে গ্রহণ করেছে। শতভাগ স্বাস্থ সম্মত স্যানিটেশন অর্জনের মাধ্যমে আমাদের এ সফলতাকে টেকসই করতে হবে।
২০৩০ সালের মধ্যে সকলের জন্য নিরাপদ পানি ও স্বাস্থসম্মত স্যানিটেশন লক্ষমাত্রা পূরণে সরকার বদ্ধপরিকর উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ২০০৩ সাল থেকে স্থানীয় সরকার বিভাগ অক্টোবর মাসকে জাতীয় স্যানিটেশন মাস হিসেবে পালন করার কারণে স্বাস্থসম্মত টয়লেট ব্যবহারে মানুষ উদ্বুদ্ধ হয়েছে। দেশব্যাপী স্যানিটেশন কার্যক্রমকে বেগবান করতে জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে স্যানিটেশন টাস্কফোর্স গঠন করে দেয়া হয়েছে এবং টাস্কফোর্স সমূহ অত্যন্ত সফলতার সাথে কাজ করছে বলে তিনি অবহিত করেন।
অনুষ্ঠানে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান স্বাগত বক্তব্য দেন। স্যানিটেশন সেক্রিটারেয়েটের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ গোলাম মোক্তাদির ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা ও স্যানিটেশন’ বিষয়ক অগ্রগতি ও পরিকল্পনা উপস্থাপনা করেন।