রোহিঙ্গাদের নির্যাতনে জড়িতদের বিচারে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরো সোচ্চার হওয়ার আহ্বান

284

ঢাকা, ৩ অক্টোবর ২০১৮ (বাসস): রোহিঙ্গাদের নির্যাতনে জড়িতদের বিচার নিশ্চিত করতে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরও সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল।
তাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনের দাবির প্রতি জোরালো সমর্থন জানানোর জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
গত ১ অক্টোবর নেদারল্যান্ডে ইরাসমাস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব সোস্যাল স্ট্যাডিজ (আইএসএস)-এ অনুষ্ঠিত ‘মাইগ্রেশন ক্রাইসিস: দ্যা রিটোরিক্স এ্যান্ড রিয়ালিটিস, হোয়াট ইজ দ্যা রিয়েল স্টোরি’ শীর্ষক এক সেমিনারে রাষ্ট্রদূত এ আহ্বান জানান।
আজ ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়ে বলা হয়, ‘নেদারল্যান্ডে নাইজেরিয়ান ছাত্র সংগঠনের উদ্যোগে নাইজেরিয়ান দূতাবাস এবং বাংলাদেশ দূতাবাসের সহায়তায় এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।
সেমিনারে শেখ মুহম্মদ বেলাল মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বিতাড়িত দশ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাদের আশ্রয় প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশ যে মানবতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তা তুলে ধরেন এবং এই সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রী গত ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যে তিনটি প্রস্তাবনা রেখেছেন তার প্রতি আলোকপাত করেন।
প্রধানমন্ত্রীর তিন প্রস্তাবনার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রতি অন্যায় আচরণ দূরীকরণ এবং মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের জোরপূর্বক বিতাড়নের কারণ নিবারণ, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বসবাস সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি প্রয়োজনে ‘নিরাপদ এলাকা’ গঠন, এবং মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের প্রতি সংগঠিত জঘন্য অপরাধ প্রতিরোধে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে যথাযথ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি জোরপূর্বক বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে দ্রুত প্রত্যাবর্তনে সবাইকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
দি হেগস্থ বিভিন্ন দূতাবাস এবং আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ, ছাত্র-শিক্ষকগণ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ এবং অন্যান্য পেশাজীবিরা এই সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন।
লাইডেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক টন ডিয়াজ, আইএসএস-এর সহকারী অধ্যাপক ডক্টর হেলেন হিন্টজেন্স এবং নাইজেরিয়ান দূতাবাসের প্রতিনিধিও সেমিনারে বক্তব্য রাখেন।