বাসস দেশ-২০ : আগামীকাল জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস

181

বাসস দেশ-২০
উৎপাদনশীলতা-দিবস
আগামীকাল জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস
ঢাকা, ১ অক্টোবর, ২০১৮ (বাসস) : জাতীয় পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের শিল্প, কৃষি ও সেবাসহ বিভিন্নখাতে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে আগামীকাল ‘জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস’ উদ্যাপন করা হবে।
এ বছর জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবসের মূল প্রতিপাদ্য- ‘সুখী ও সমৃদ্ধ দেশ বিনির্মাণে উৎপাদনশীলতা’। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন ন্যাশনাল প্রোডাকটিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
দিবসটি উপলক্ষে আজ এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, টেকসই উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধির জন্য উৎপাদনশীলতা অপরিহার্য। এজন্য কৃষি, শিল্প ও সেবাসহ প্রতিটি সেক্টরে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে হবে। এ লক্ষ্যে এনপিও’র পাশাপাশি দেশের সরকারি-বেসরকারি সকল শিল্প ও সেবা প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবসটি উপলক্ষে দেয়া বাণীতে বলেন, সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্য অর্জনে সকল খাতে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য। এজন্য জনগণের মধ্যে এ বিষয়ে সচেতনতাবোধ সৃষ্টি করা প্রয়োজন।
দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে আগামীকাল সকাল ৮ টায় ভারপ্রাপ্ত শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিমের নেতৃত্বে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, শিল্প-কারখানার মালিক, শ্রমিক ও কর্মচারীর অংশগ্রহণে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তন থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হবে।
বিকেল ৪টায় রাজধানীর সিরডাপ অডিটরিয়ামে ‘সুখী ও সমৃদ্ধ দেশ বিনির্মাণে উৎপাদনশীলতা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। ভারপ্রাপ্ত শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিমের সভাপতিত্বে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু প্রধান অতিথি এবং কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসেবে সভায় উপস্থিত থাকবেন।
দিবসটি উপলক্ষে ইতিমধ্যে এনপিও প্রচার সামগ্রী, বুকলেট, স্যুভেনির ও পোস্টার প্রকাশ করেছে। দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে বাংলাদেশ টেলিভিশন প্রামাণ্য অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে এবং জাতীয় দৈনিকে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশিত হবে। মোবাইল ফোন অপারেটররা ক্ষুদেবার্তা, ভয়েস মেসেজ ও রোবকল প্রেরণ করে উৎপাদনশীলতা বিষয়ে জনগণকে সচেতন করবে। এছাড়া দেশব্যাপী জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে আলোচনা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে।
বাসস/সবি/এমএসএইচ/১৮৫০/কেকে