বাসস ক্রীড়া-১৯ : বাংলাদেশকে ২৫৬ রানের টার্গেট দিলো আফগানিস্তান

459

বাসস ক্রীড়া-১৯
ক্রিকেট-এশিয়া কাপ
বাংলাদেশকে ২৫৬ রানের টার্গেট দিলো আফগানিস্তান
আবু ধাবি, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ১৪তম আসরের ষষ্ঠ ও ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৫ রান করেছে আফগানিস্তান।
আবু ধাবিতে গুরুত্বহীন ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেয় আফগানিস্তান। দ্বিতীয় ওভারেই মারমুখী হয়ে উঠেন ওপেনার এহসানউল্লাহ। ঐ ওভারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে পরপর দু’টি বাউন্ডারি মারেন তিনি। তবে চতুর্থ বলেই এহসানউল্লাহকে থামিয়ে দেন অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা বাঁ-হাতি পেসার আবু হায়দার। ৪ বলে ৮ রান করেন এহসানউল্লাহ।
এরপর শুরুর ধাক্কা সামাল দেন আরেক ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ ও রহমত শাহ। কিন্তু বেশি দূর যেতে পারেননি তারা। তাদের পথে বাঁধা হয়ে দাড়ান প্রথম উইকেট শিকারী আবু হায়দার। ১৭ বলে ১০ রান করা রহমতকে বোল্ড করেন আবু হায়দার।
শেহজাদ ও রহমত পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ হলেও, তৃতীয় উইকেট জুটি থেকে বলার মত স্কোরই পায় আফগানিস্তান। তৃতীয় উইকেটে জুটি বাঁেধন শেহজাদ ও হাসমতউল্লাহ শাহিদি। বাংলাদেশ বোলারদের দেখেশুনে খেলে দলের স্কোর বড় করতে থাকেন শেহজাদ ও শাহিদি। জুটিতে হাফ-সেঞ্চুরিও পূর্ণ করেন তারা।
তবে হাফ-সেঞ্চুরির পরই শেহজাদ-শাহিদির জুটিতে ভাঙ্গন ধরান সাকিব আল হাসান। শেহজাদকে শিকার করেন তিনি। ৪টি চারে ৪৭ বলে ৩৭ রান করেন শেহজাদ। জুটিতে শেহজাদ-শাহিদি ৮২ বলে ৫১ রান যোগ করেন।
শেহজাদকে শিকার করে থমকে যাননি সাকিব। পাঁচ নম্বরে নামা আফগানিস্তানের অধিনায়ক আসগর আফগানকে দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে বোল্ড করেন সাকিব। ১৬ বলে ৮ রান করেন আসগর।
আসগরের বিদায়ে উইকেটে আসেন সামিউল্লাহ শেনওয়ারি। ভালো শুরু করেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি শেনওয়ারি। কারন এখানেও বাধ সাধেন সাকিব। শেনওয়ারিকে বিদায় দেন তিনি। ৩১ বলে ১৮ রান করেন শেনওয়ারি।
একপ্রান্ত আগলে দলের রানের চাকা সচল রাখার পাশাপাশি ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ও বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন শাহিদি। হাফ-সেঞ্চুরির পর নিজের ধীর গতির ইনিংসটি বড় করতে পারেননি শাহিদি। বাংলাদেশের পেসার রুবেল হোসেনের প্রথম শিকার হবার আগে ৫৮ রানে থামেন তিনি। তার ৯২ বলের ইনিংসে ৩টি চার ছিলো।
রুবেলের শিকারের পর অন্যপ্রান্ত দিয়ে নিজের চতুর্থ উইকেট তুলে নেন সাকিব। আফগানিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ নবীকে বিদায় দেন তিনি। ২৪ বলে ১০ রান করেন নবী।
দলীয় ১৬০ রানে সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে প্যাভিলিয়নে ফিরেন নবী। তখন ইনিংসের ৫৫ বল বাকী ছিলো। অষ্টম উইকেটে বাকী ৫৫ বলে ৯৫ রান যোগ করে অবিচ্ছিন্ন ছিলেন নাইব ও রশিদ।
নিজের ২০তম জন্মদিনের দিন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন রশিদ। ৩২ বলে ৮টি চার ও ১টি ছক্কায় অপরাজিত ৫৭ রান করেন রশিদ। অন্যপ্রান্তে ৫টি চারে ৩৮ বলে অপরাজিত করেন ৪২ রান করেন নাইব। বাংলাদেশের সাকিব ৪২ রানে ৪ উইকেট নেন।
স্কোর কার্ড :
আফগানিস্তান ইনিংস :
শেহজাদ ক হায়দার ব সাকিব ৩৭
এহসানুল্লাহ ক মিথুন ব হায়দার ৮
রহমত বোল্ড ব হায়দার ১০
শাহিদি ক লিটন ব রুবেল ৫৮
আসগর বোল্ড ব সাকিব ৮
সামিউল্লাহ বোল্ড ব সাকিব ১৮
নবী এলবিডব্লু ব সাকিব ১০
নাইব অপরাজিত ৪২
রশিদ অপরাজিত ৫৭
অতিরিক্ত (বা-৪) ৪
মোট (৭ উইকেট, ৫০ ওভার) ২৫৫
উইকেট পতন : ১/১০ (এহসানউল্লাহ), ২/২৮ (রহমত), ৩/৭৯ (শেহজাদ), ৪/১০১ (আসগর), ৫/১৩৯ (সামিউল্লাহ), ৬/১৫০ (শাহিদি), ৭/১৬০ (নবী)।
বাংলাদেশ বোলিং :
রুবেল : ৬-১-৩২-১,
হায়দার : ৯-১-৫০-২ (ও-১),
মিরাজ : ৮-০-২১-০,
মাশরাফি : ৮-০-৬৭-০ (নো-১),
সাকিব : ১০-১-৪২-৪,
মোসাদ্দেক : ৪-০-১৮-০,
মোমিনুল : ৩-০-১৫-০,
মাহমুদুল্লাহ : ২-০-৫-০।
বাসস/এএমটি/২১২০/স্বব