নোয়াখালীর হাসপাতালে দরিদ্র রোগীদের জন্য কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিটের যাত্রা শুরু

346

নোয়াখালী, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ (বাসস) : নোয়াখালী ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে দরিদ্র রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার লক্ষ্যে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০ শয্যাবিশিষ্ট কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিটের উদ্বোধন করা হয়েছে। এই ইউনিটে প্রতিদিন গড়ে ৩ শিফটে ১০ জন করে মোট ৩০ জন কিডনি রোগীর ডায়ালাইসিস করা হবে।
আজ জেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভা শেষে নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি একরামুল করিম চৌধুরী এই কিডনী ডায়ালাইসিস ইউনিটের উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাহবুবু আলম, সিভিল সার্জন ডা.বিধান চন্দ্র সেন, নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহিদ উল্যা খান সোহেল, নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. খলিল উল্যাহ, নোয়াখালী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ও স্বাচিপ নোয়াখালীর সভাপতি ডা. ফজলে এলাহী খাঁন, স্বাচিপ নোয়াখালীর সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহবুব রহমান, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুর রহমান জাবেদ।
কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিটের তত্ত্বাবধানে থাকা নোয়াখালী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. ফজলে এলাহী খাঁন বলেন, ডায়ালাইসিস ইউনিটটি চালু হওয়ায় জেলার দরিদ্রের চিকিৎসা সেবার পথ সুগম হলো। তিনি আরো বলেন, প্রাইভেট হাসপাতালগুলোতে ডায়ালাইসিস করতে গেলে রোগীদের ৩-৪ হাজার টাকা খরচ হয় কিন্তু এই ইউনিটটি চালু হওয়ায় মাত্র ৪শ’ থেকে ৬শ’ টাকার মধ্যে ডায়ালাইসিস করানো সম্ভব হবে। আমাদের এখানে অত্যাধুনিক মেশিনের সাহায্যে ডায়ালাইসিস করা হবে যা নোয়াখালীর অন্য কোন প্রাইভেট হাসপাতালে করা সম্ভব নয়। এ ছাড়া আমরা ৯ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ করিয়ে তাদেরকে দক্ষ করে তুলেছি।
উল্লেখ্য, এ ইউনিটের সরকারী বরাদ্ধকৃত ২ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক মেশিন আনা হয় এবং প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যয়ে জেলা গণপূর্ত বিভাগ অবকাঠামো নির্মান করেন।