‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে নাটোরে ২য় পর্যায়ে বসতবাড়ি পাচ্ছে এক হাজার ৩৮১টি পরিবার

112

নাটোর, ১৮জুন ২০২১(বাসস) : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে দ্বিতীয় পর্যায়ে জেলার সাতটি উপজেলার একহাজার ৩৮১টি ভূমিহীন ও গৃহহহীন পরিবার বসতবাড়ি পাচ্ছে।
প্রতিটি পরিবার বাড়ির সাথে জমিরও মালিক হবেন। বসতবাড়ির পাশাপাশি উপকারভোগিদেরকে দুইশতক করে খাস জমি লিখে দেয়া হচ্ছে। এসব বাড়িতে দুইকক্ষ বিশিষ্ট সেমিপাকা প্রতিটি একক গৃহে একটি টয়লেট ও একটি রান্না ঘরসহ আনুসঙ্গিক সকল সুযোগসুবিধা রয়েছে।
আজ শুক্রবার বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন নাটোরের জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ এসব তথ্য জানান।
জেলা প্রশাসক জানান, আগামী রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনলাইন সভায় জেলার সাতটি উপজেলা পরিষদের সাথে যুক্ত হয়ে এসব বাড়িগুলো জমির দলিলসহ হস্তান্তর করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
তিনি জানান, এবার দ্বিতীয় পর্যায়ে ২৬ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে একহাজার ৩৮১ পরিবারের মধ্যে সিংড়া উপজেলাতে বসতবাড়ি পাবে আটশ’টি পরিবার।এছাড়াও গুরুদাসপুর উপজেলায় ১৩৫টি, বড়াইগ্রামে ১৬৬টি, বাগাতিপাড়ায় ১২০টি, নাটোর সদরে ১০০টি, লালপুরে ৫০টি এবং নলডাঙ্গা উপজেলায় ১০টি পরিবার বসতবাড়ি পাবে। এরমধ্যে একহাজার ২৭৮টি পরিবারকে রোববার ঘর হস্তান্তর করা সম্ভব হবে। অবশিষ্ট ১০৩টি ঘরের কিছু কাজ অসমাপ্ত থাকায় ওইসব বাড়ির উপকারভোগিরা আগামী জুলাইমাসে বাড়িগুলো বুঝে পাবেন।
সংবাদ সম্মেলনে অনান্যের মধ্যে জেলায় স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. গোলাম রাব্বী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আশরাফুল ইসলাম ও সদর উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।