ইউরো ২০২০: অস্ট্রিয়াকে পরাজিত করে তৃতীয় দল হিসেবে নক আউট পর্বে নেদারল্যান্ড

118

এ্যামাস্টারডাম, ১৮ জুন ২০২১ (বাসস) : অস্ট্রিয়াকে ২-০ গোলে পরাজিত করে দুই ম্যাচে শতভাগ জয় নিয়ে তৃতীয় দল হিসেবে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেছে নেদারল্যান্ড।
গতকাল এ্যামাস্টারডামের ইয়োহান ক্রুইফ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মেমফিস ডিপের ১১ মিনিটের পেনাল্টিতে এগিয়ে যায় ডাচরা। ডেনজেল ডামফ্রাইসকে ফাউলের অপরাধে ইসরাইলী রেফারী ওরেল গ্রীনফিল্ড ডেভিড আলাবার বিপক্ষে পেনাল্টির নির্দেশ দেন। যদিও ভিএআর-এর মাধ্যমে সিদ্ধান্তটি চূড়ান্ত করা হয়। ইউক্রেনের বিপক্ষে উত্তেজনাকর ম্যাচে ৩-২ গোলে পরাজিত করা নেদারল্যান্ড এবার দ্বিতীয় জয় নিশ্চিত করে টুর্নামেন্টের নক আউট পর্বে উঠে গেল। প্রথম ম্যাচে দারুন খেলা ডামফ্রাইস ৬৭ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেছেন।
ঘরের মাঠে প্রথম থেকেই বেশ স্বস্তিতে খেলতে দেখা গেছে ডাচদের। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপের পর প্রথম বড় কোন টুর্নামেন্টে খেলতে আসা ফ্র্যাংক ডি বোয়ারের দল এবার যেকোন মূল্যেই সাফল্য ঘরে তুলতে চায়। বোয়ারের পূর্বসূরী বার্সেলোনার বর্তমান কোচ রোনাল্ড কোম্যান কাল মাঠে উপস্থিত ছিলেন।
বুখারেস্টে সি-গ্রুপের আরেক ম্যাচে ইউক্রেন ২-১ গোলে মেসিডোনিয়াকে পরাজিত করে প্রথম জয় নিশ্চিত করেছে। গ্রুপের অপর দল অস্ট্রিয়াও এক জয়ে তিন পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে রয়েছে, তলানির দল মেসিডোনিয় দুই ম্যাচেই পরাজিত হয়ে পয়েন্ট টেবিলে কোন নম্বর যোগ করতে পারেনি।
এর অর্থ হচ্ছে আগামী সোমবার নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচে ডি বোয়ার দলের নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড়দের অনায়াসেই বিশ্রাম দিতে পারেন। ম্যাচ শেষে ডি বোয়ার জানিয়েছেন ১৯৮৮ সালের চ্যাম্পিয়নদের ইতোমধ্যেই তিনি কোয়ার্টার ফাইনালের পথে দেখছেন। যদিও টুর্নামেন্টে এগিয়ে যেতে হলে দলের বেশ কিছু জায়গায় এখনো উন্নতির প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু ডি বোয়ারের অধীনে ৩-৫-২ ফর্মেশনেই তারা স্থির থাকবে বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।
মাঝারি মানের দল হিসেবে অস্ট্রিয়াও এখনো নিজেদের আশা টিকিয়ে রেখেছে। অধিনায়ক এবং দলের সেরা খেলোয়াড় আলাবার অযথাই পেনাল্টি উপহার দেবার বিষয়টি অবশ্য তারা মেনে নিয়েছে। নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ৩-১ গোলের দাপুটে জয় নিশ্চিত করেছিল অস্ট্রিয়া। সেই ম্যাচে একেবারে শেষ মুহূর্তে গোল করা অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার মার্কো অরনাটোভিচ নিষেধাজ্ঞার কারনে দলে অনুপস্থিত থাকাই তা দলকে বেশ ভুগিয়েছে বলে স্বীকার করেছেন ফ্র্যাংকো ফোডা। ইউক্রনের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে নিজেদেও প্রমান করতে পারলে এখনো অস্ট্রিয়ার সামনে নক আউট পর্বে যাবার সুযোগ রযেছে।
এই গ্রুপে দ্বিতীয় দলটি গ্রুপ-এ’র শীর্ষ দল হিসেবে ওয়েলস অথবা ইতালির বিপক্ষে আগামী ২৬ জুন লন্ডনে মুখোমুখি হবে।