বাসস ক্রীড়া-২০ : টোকিও অলিম্পিকে বিদেশী সাংবাদিকদের পর্যবেক্ষণে জিপিএস

95

বাসস ক্রীড়া-২০
অলিম্পিক-স্বাস্থ্য-ভাইরাস
টোকিও অলিম্পিকে বিদেশী সাংবাদিকদের পর্যবেক্ষণে জিপিএস
টোকিও, ৮ জুন, ২০২১ (বাসস/এএফপি): টোকিও অলিম্পিকের সংবাদ সংগ্রহের জন্য আগত বিদেশী সাংবাদিকদের পর্যবেক্ষণে ব্যবহার করা হবে জিপিএস প্রযুক্তি। গেমসের সভাপতি মঙ্গলবার একথা উল্লেখ করে বলেন, এর মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারব তারা বিধিবিধান মেনে চলছে কিনা।
করোনা মহামারির কারণে স্থগিত হয়ে যাওয়া ২০২০ অলিম্পিক এক বছর পর ফের শুরুর বাকী আর মাত্র ছয় সপ্তাহের মত। আয়োজকরা চেস্টা করছেন কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের মাধ্যমে মানুষকে করোনা ভাইরাসের শংকামুক্ত রেখে এই মেগা ইভেন্টটি সফলভাবে সম্পন্ন করতে।
গেমসের সংবাদ সংগ্রহের জন্য জাপান সফর করতে যাওয়া আনুমানিক ৬ হাজার সাংবাদিককে এই বিষয়ে বিস্তারিত তালিকা সরবরাহ করা হবে, যেখানে নির্দেশনা থাকবে প্রথম দুই সপ্তাহ তারা ক্রীড়া ভেন্যু ও হোটেলসহ কোন কোন স্থান সফর করতে পারবেন। টোকিও ২০২০ গেমসের প্রধান সেইকো হাসিমোতো বলেন, এজন্য ব্যবহার করা হবে ট্র্যাকিং প্রযুক্তি। যার মাধ্যমে তারা সঠিক নির্দেশনা মানছেন কিনা সেটি নজরদারী করা হবে।
তিনি টোকিও ২০২০ নির্বাহি বোর্ডের বৈঠকের আগে বলেন,‘ নির্ধারিত জায়গার বাইরে তারা যেন না যান সেটি নিশ্চিত করতে হবে। তাদের আচরণ কঠিনভাবে নিয়ন্ত্রনের জন্য আমরা জিপিএস ব্যবহার করব।’
নির্ধারিত হোটেলগুলো ব্যবহারের জন্য তিনি সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান। পুর্বপরিকল্পিত ৩৫০টি হোটেলের পরিবর্তে গেমসে আগত সাংবাদিকদের জন্য এখন ১৫০টি হোটেল নির্ধারণ করা হয়েছে। তাদেরকে নিবিড় পর্যবেক্ষনে রাখার চেস্টা করার আহ্বান জানান এই গেমস প্রধান।
গেমসে অংশগ্রহনকারী অ্যাথলেটদেরও কঠিন নিয়ম কানুনের মোকাবেলা করতে হবে। সেই সঙ্গে প্রতিদিন অংশ নিতে হবে কোভিড টেস্টে। ইতোমধ্যে ইভেন্টে বিদেশী দর্শক আগমন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে স্থানীয় ভাবে কি পরিমন দর্শক গেমস দেখতে পারবে সে বিষয়ে সিদ্ধন্ত হবে এই মাসের শেষ ভাগে।
বাসস/এএফপি/এমএইচসি/১৯৫০/-স্বব