এলডিসি থেকে উত্তরণ টেকসই করতে প্রয়োজন সমন্বিত সহায়তা পদক্ষেপ : রাবাব ফাতিমা

218

ঢাকা, ২৭ মে, ২০২১ (বাসস): জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেছেন, স্বল্পোন্নত দেশের ক্যাটেগরি থেকে উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর উন্নয়নকে টেকসই করতে জাতিসংঘসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থার সাহসী, উদ্ভাবনী, উন্নত ও সমন্বিত সহায়তামূলক পদক্ষেপ প্রয়োজন।
আজ এক তথ্য বিবরনীতে বলা হয়, গতকাল জাতিসংঘ সদরদপ্তরে চলমান এলডিসি-৫ প্রস্তুতিমূলক সভার অংশ হিসেবে আয়োজিত “উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর জন্য উন্নত সহায়তা পদক্ষেপ” শীর্ষক ভার্চুয়াল থিমেটিক আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন, জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি ও স্বল্পোন্নত দেশ, ভূবেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ এবং উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ রাষ্ট্রসমূহের জন্য নিযুক্ত জাতিসংঘের উচ্চ প্রতিনিধির কার্যালয় অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে আয়োজন করে।
ফাতিমা বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে এলডিসি থেকে উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলো এজেন্ডা-২০৩০ বাস্তবায়নে ব্যাপক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। এমন সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে দেশগুলোর বাণিজ্য, মেধাস্বত্ত্ব অধিকার ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ‘টেকসই উত্তরণ সহায়তা সুবিধাদি’-এর মতো নতুন ও উন্নত সহায়তা কাঠামোর বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন।
বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন যে, জাতিসংঘসহ ‘ইন্টার-এজেন্সি টাস্কফোর্স’ এসকল দেশগুলোর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যুৎসই ধারণা নিয়ে আসবে যা উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর টেকসই উত্তরণ নিশ্চিত করবে এবং তাদেরকে পিছলে পড়ার ঝুঁকি থেকে রক্ষা করবে।
২০২২ সালে কাতারে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের পঞ্চম এলডিসি সম্মেলনের সফলতা ঘরে তুলতে প্রস্তুতিমূলক কমিটির চলমান এই সভা তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন এলডিসি-৫ এর প্রস্তুতিমূলক সভার কো-চেয়ার রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।
তিনি আরো বলেন, প্রস্তুতি কমিটির এ সভাসমূহের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও উন্নয়ন অংশীদারগণ উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর জন্য কোভিড-১৯ এর চ্যালেঞ্জসহ উত্তরণের অন্যান্য চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যথোপযুক্ত সহায়তা পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবে।
আলোচনা অনুষ্ঠানটিতে অংশ নেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ এর পরিচালক তাফিরি টেসফাসিউ এবং ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য।
স্বল্পোন্নত দেশ, ভূবেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ এবং উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ রাষ্ট্রসমূহের জন্য নিযুক্ত জাতিসংঘের উচ্চ প্রতিনিধির কার্যালয়ের পরিচালক ও আইএটিএফ এর সভাপতি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন কমিশনের উপ-ইউনিট প্রধান, আইটিইউ-এর ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল এ আলোচনায় অংশ নেন। এছাড়া বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ, লাওস ও জিবুতিতে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী ও তাদের প্রতিনিধিরা।
গত ২৪ মে জাতিসংঘ সদরদপ্তরে শুরু হওয়া এলডিসি-৫ এর প্রস্তুতিমূলক সভা ২৮ মে শেষ হবে।