রাজধানীর খিলক্ষেতে ছিনতাইকারী-পুলিশ গুলি বিনিময়, গ্রেফতার ২

182

ঢাকা, ১৮ মে, ২০২১ (বাসস) : রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকায় গোয়েন্দা পুলিশ ও সশস্ত্র ছিনতাইকারী দলের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং গোলাগুলি হয়েছে। এ সময় দু’জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা গুলশান বিভাগ।
এ ঘটনায় এনামুল ও রাসেল নামে দু’ছিনতাইকারী নিহত এবং ২ জন পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছে।
আহত পুলিশ সদস্যদেরকে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, নয়ন এবং ইয়ামিন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি সিএনজি চালিত অটোরিকসা, একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি ভর্তি ম্যাগাজিন, কাঠের বাটযুক্ত ছুরি ১ টি, ২টি টাইগার বাম, ১ টি সবুজ রঙের গামছা, ৯ টি মোবাইল ফোন, ১৬ পিস ইয়াবা, একটি লাইটার ও নগদ ৫ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে।
সোমবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে খিলক্ষেত থানা এলাকায় গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের একাধিক টিম এবং খিলক্ষেত থানা পুলিশের সমন্বিত দলের সাথে সশস্ত্র ছিনতাইকারী দলের এ গুলি বিনিময় হয়।
তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, পবিত্র রমজান ও ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে লাখ লাখ মানুষ ঢাকা ছেড়েছেন। ঢাকার ভেতরে গভীর রাতেও এই যাওয়া-আসা অব্যাহত ছিল। গভীর রাতে শহরে বাস-মিনিবাসের মতো গণপরিবহন বন্ধ থাকায় অনেক সময় সিএনজি অটোরিকশা, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস এবং মালবাহী ছোট পিকআপও যাত্রী আনা-নেওয়া করে থাকে। ছিনতাইকারী ও ডাকাত চক্র গণপরিবহনের এই স্বল্পতা সুযোগ কাজে লাগিয়ে রাইড শেয়ারের নামে মানুষের সর্বস্ব ডাকাতি করে নিয়ে যাচ্ছে এবং এই ডাকাতির ঘটনায় দু’একজন খুনও হয়েছে।
সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টা থেকে গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের একাধিক টিম খিলক্ষেত থানা পুলিশের সঙ্গে নিরাপত্তা টহল দিচ্ছিল। ডিবি পুলিশের একটি দল কাওলা হয়ে পূর্বাচলগামী ফ্লাইওভারের প্রবেশমুখে, দ্বিতীয় দলটি পূর্বগামী ফ্লাইওভারের মাঝে অবস্থান নিয়ে তল্লাশি করছিল। রাত অনুমান সোয়া ২টার দিকে কাওলা থেকে বিশ্ব রোডের দিকে একটা সিএনজি কয়েকজন লোককে নিয়ে যাচ্ছিল। তল্লাশী কাজে নিয়োজিত পুলিশের সদস্যরা সিএনজিটি থামানোর জন্য ইশারা দিলে সেটি দ্রুত বেগে ৩শ’ ফিট ফ্লাইওভারের উপর দিয়ে পূর্বাচলের দিকে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে। পুলিশের এই দলটি ওয়ারলেসের মাধ্যমে ব্রীজের মাঝে থাকা দলকে সতর্ক করলে তারা তাদের মাইক্রোবাসকে আড়াাআড়ি দাঁড় করিয়ে দেয় এবং প্রথম দলটি সিএনজিটিকে ধাওয়া করতে থাকে।
কিছুক্ষণ পরে সিএনজি থেকে দু’জন অপরাধী নেমে দৌড়ে সামনে যেতে থাকে এবং পুলিশের একটি মাইক্রোবাস আড়াআড়ি দেখে সেটিকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে ডিবি পুলিশের একটি মাইক্রোবাসের বাম দিকের কাঁচ ভেঙে যায়। নিজেদের জীবন, সরকারি অস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল রক্ষার্থে আক্রান্ত মাইক্রোবাসটি থেকে ডিবি পুলিশ পাল্টা গুলি চালায়। এসময় অপরাধী এবং পুলিশের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং গোলাগুলি হয়। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি শান্ত হলে সবুজ রঙের একটি সিএনজি অটোরিকশাকে ফ্লাইওভারের সাথে ধাক্কা খাওয়া অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সিএনজি হতে ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়। ফ্লাইওভারের উপরে আরও দু’জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখা যায়। আহতদের একজনের ডান হাতের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল এবং দু’রাউন্ড গুলি ভর্তি একটি ম্যাগাজিন ও দেহ তল্লাশী করে ৪ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। অপর জনের হাত থেকে একটি ধারালো ছুরি ও দেহ তল্লাশী করে ৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে।
এছাড়াও গ্রেফতারকৃতদের হেফাজত হতে ৯টি মোবাইল, ৭ পিস ইয়াবা এবং মলম ও গামছা উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় খিলক্ষেত থানায় পৃথক তিনটি মামলা করা হয়েছে।