রোনালদোর হোম অভিষেক ম্যাচে জুভেন্টাসের জয়

261

তুরিন (ইতালী), ২৬ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস/এএফপি) : ইতালীতে প্রতিযোগিতামুলক ম্যাচে জুভেন্টাসের হয়ে এখনো গোলের অপেক্ষায় রয়েছেন পুর্তগাল সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে শনিবার নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ল্যাৎসিওকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পর্তুগীজ সুপার স্টারের নতুন ক্লাবটি। একই দিন ২ গোলে পিছিয়ে পড়ার পরও এসি মিলানকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে কার্লো আনচেলত্তির নেপোলি।
আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামের ম্যাচে নিজে গোল করতে না পারলেও ৭৫তম মিনিটে স্বাগতিক দলের হয়ে মারিও মানজুকিচের গোলটির যোগানদাতা ছিলেন ৩৩ বছর বয়সি রোনালদো। ওই গোলের সুবাদে নিরাপদ স্থানে পৌছে যায় স্বাগতিক জুভেন্টাস। ১০০ মিলিয়ন ইউরোর চুক্তিতে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সিরি এ চ্যাম্পিয়ন দলে যোগ দিয়েছেন ৫বারের ব্যালন ডিঅঁর খেতাব জয়ী রোনালদো।
এর ফলে লীগে টানা প্রথম দুই ম্যাচে জয় নিশ্চিত করল জুভেন্টাস। ভেরোনায় অনুষ্ঠিত লীগের প্রথম ম্যাচে তারা ৩-২ গোলে হারিয়েছে চিয়েভোকে। ম্যাচ শেষে জুভেন্টাস কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি বলেন,‘ রোনালদোর অংশগ্রহনে প্রথম ম্যাচে আজ ঝুকিপুর্ন একটি দিন কাটিয়েছি আমরা। তবে দলের পারফর্মেন্সে আমি খুশি। লীগের সেরা ক্লাব গুলোর একটির বিপক্ষে এটি ছিল আমাদের প্রথম লড়াই। বেশ ভালভাবেই আমরা ম্যাচটি পার করেছি।
মাত্র ১৫ দিন হলো ক্রিস্টিয়ানো (রোনালদো) আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। তিনি রক্ষনাত্মক পর্যায়ে কঠোর পরিশ্রম করছেন। বুদ্ধিদীপ্ত লীড এনে দিয়ে তিনি নিজেকে প্রমান করেছেন। তিনি বুঝতে পেরেছেন যে ইতালীয় লীগ হচ্ছে স্প্যানিশ লীগ থেকে সম্পুর্ন আলাদা। যদিও সবাই তার গোল দেখার জন্য মুখিয়ে আছে, কিন্তু তিনি যা করে দেখিয়েছেন তাতে আমি খুশি। কারন তিনি খুবই নিরহঙ্কার একজন মানুষ।’
এদিকে গত সপ্তাহে নিজেদের মাঠে নেপোলির কাছে ২-১ গোলে হারের পর জুভেন্টাসের কাছে গতকালের পরাজয়ের মধ্য দিয়ে সবচেয়ে বাজে ভাবে লীগ মৌসুম শুরু করল গত লীগের পঞ্চম স্থানে থাকা ল্যাৎসিও। কোচ সিমোনে ইনজাগি বলেন,‘ আমরা এমন সুচনা আশা করিনি। আমরা ভিন্ন ভাবে খেলতে চেয়েছিলাম।’ গত বছর ঘরোয়া ফুটবলে জুভেন্টাসের টানা দুই বছর অপরাজিত থাকার রেকর্ডটি থামিয়ে দিয়েছে ক্লাবটি। কিন্তু এবার তারা ব্যর্থ হয়েছে।
ম্যাচের ৩০ তম মিনিটে মিরালেম পজনিকের গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। দ্বিতীয় গোলটি পেতে চ্যাম্পিয়নদের অপেক্ষা করতে হয়েছে দীর্ঘ ৪৫ মিনিট। ৭৫তম মিনিটে রোনালদোর যোগান থেকে গোল করে জুভেন্টাসের জয়কে পুর্নতা দেন মানজুকিচ।
এর আগে ৬৩তম মিনিটে গোল করার একটি মোক্কম সুযোগ পেয়েছিলেন রোনালদো। জোয়াও ক্যানসেলোর ক্রসের বল নিয়ন্ত্রনে নিয়ে রোনালদোর নেয়া শটের বল অল্পের জন্য বারকে পাশ কাটিয়ে চলে যায়। ৭১তম মিনিটে আরো একটি সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হত পর্তুগাল সুপার স্টার।
শনিবার অনুষ্টিত লীগের আরেক ম্যাচে ঘরের মাঠে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছেন নেপোলির কোচ কার্লো আনচেলত্তি। এসি মিলানের বিপক্ষে ০-২ গোলে পিছিয়ে পড়ার পরও শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলের এক রোমঞ্চক জয় পেয়েছে নেপোলি।
সান পাওলো স্টেডিয়ামে অনুষ্টিত ম্যাচের ১৫তম মিনিটে মিলানের হয়ে গোলের খাতা খোলেন গিয়াকোমো বোনাভেনচুরা। ম্যাচের ৪৯তম মিনিটে ডেভিড কালাবরিয়ার ভলিতে ২-০ গোলের লীড পায় সফরকারী মিলান।
তবে এরপর খুব দ্রুতই ঘুরে দাঁড়ায় গত আসরের রানারআপরা। ম্যাচের ৫৩ ও ৬৭তম মিনিটে পরপর দুই গোল করে সফরকারীদের সমতায় ফিরিয়ে আনেন পিটর জিয়েলিনস্কি। ম্যাচের ৮০তম মিনিটে দ্রিয়েস মার্টেন্সের গোলে জয় নিশ্চিত হয় নেপোলির।
উল্লেখ্য খেলোয়াড়ি জীবনে অধিকাংশ সময় এসি মিলানেই কাটিয়েছেন ৫৯ বছর বয়সি নেপোলির কোচ আনচেলত্তি। এ সময় তিনি তিনটি সিরি এ লীগের এবং চারটি ইউরোপীয় শিরোপা জয় করেছেন।