বাসস ক্রীড়া-১৬ : সাঁতারে নৌবাহিনী সেরা

146

বাসস ক্রীড়া-১৬
বঙ্গবন্ধু-গেমস-সাঁতার
সাঁতারে নৌবাহিনী সেরা
ঢাকা, ৬ এপ্রিল ২০২১ (বাসস) : বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ) আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে সাঁতারের শেষদিনে আজ ১০ ইভেন্টের নিষ্পত্তি হয়েছে। এদিন মিরপুর সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিং কমপ্লেক্সে ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে ইভেন্টে রেকর্ড গড়েন নৌবাহিনীর কাজল মিয়া। এ নিয়ে গেমসের সাঁতারে মোট ১১টি নতুন রেকর্ড হয়েছে।
গেমসের ডাইভিং, ওয়াটারপোলো ও সাঁতার ইভেন্টে সব মিলিয়ে মোট ৪২ স্বর্ন পদকের নিষ্পত্তি হয়। নৌবাহিনী ৩৩ সোনা জিতে শীর্ষস্থান লাভ করেছে। সেনাবাহিনী ৯ সোনা নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় এবং বিকেএসপি ১ রুপা ও ৪ ব্রোঞ্জ নিয়ে দলগতভাবে তৃতীয় স্থান দখল করেছে।
আজ ছেলেদের ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে ইভেন্টে রেকর্ড গড়ে সোনা জয়ের পথে কাজল মিয়ার টাইমিং ছিল ২ মিনিট ১৩.৪৯ সেকেন্ড। আগের রেকর্ড ছিল নৌবাহিনীর আরেক সাঁতারু আরিফুল ইসলামের। ২০১৯ সালে তিনি ২ মিনিট ১৪.৭৪ সেকেন্ডে গড়েছিলেন রেকর্ডটি। এতে পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গে রৌপ্য পদক জয় করেছেন সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদ। ব্রোঞ্জ জিতেছেন নৌবাহিনীর পলাশ চৌধুরী।
৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে ইভেন্টে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদ ৪ মিনিট ৪৮.৫৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে স্বর্ন জয় করেন। ৪ মিনিট ৫৫.৯৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে নৌবাহিনীর কাজল মিয়া রূপা এবং ৫ মিনিট ০.৮৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করেন নৌবাহিনীর সাঁতারু পলাশ চৌধুরী।
নারীদের ৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে ইভেন্টে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া আক্তার টুম্পা। তার সময় লেগেছে ৫ মিনিট ৪৯.১৬ সেকেন্ড। এতে ৫ মিনিট ৫৭.১৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার রূপা এবং ৬ মিনিট ১০.০৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করেছেন নৌবাহিনীর মরিয়ম আক্তার।
ছেলেদের ৪ গুনিতক ১০০ মিটার মিডলে রিলে ইভেন্টে স্বর্ন পদক জয় করেছেন নূরে আলম, শফিকুল ইসলাম, মাহমুদুন্নবী নাহিদ ও মাহফিজুর রহমান সাগরকে নিয়ে গড়া নৌবাহিনী দল। তারা সময় নিয়েছে ৪ মিনিট ০.৭৪ সেকেন্ড। এতে ৪ মিনিট ৯.০৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে রূপা জিতেছে জুয়েল আহমেদ, সুকুমার রাজবংশী, জামরুল ইসলাম ও সিফাত উল্লাহকে নিয়ে গড়া সেনাবাহিনী দল । ব্রোঞ্জ জয়ী কিশোর গঞ্জের ভাটি বাংলা সুইমিং ক্লাবের টাইমিং ছিল ৪ মিনিট ৩৭.৭১ সেকেন্ড।
নারীদের ৪ গুনিতক ১০০ মিটার মিডলে রিলে ইভেন্টে সোনা জয় করেন যুথি আক্তার, মাহফুজা খাতুন শীলা, সোনিয়া খাতুন ও সোনিয়া আক্তারকে নিয়ে গড়া নৌবাহিনী দল। তারা সময় নিয়েছে ৫ মিনিট ০.৯০ সেকেন্ড। রুপা জয়ী সেনাবাহিনীর প্রিয়াংকা, নাঈমা আক্তার, ফাতেমা আক্তার ও শারমিন সুলতানা সময় নিয়েছেন ৫ মিনিট ১৬.৩৮ সেকেন্ড। ৫ মিনিট ২১.৯৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছে মুক্তি খাতুন, মুক্তা খাতুন, সুমি খাতুন ও সুমাইয়া খাতুনকে নিয়ে গড়া বাংলাদেশ আনসার।
২ মিনিট ৪০.৫৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে নারীদের ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে ইভেন্টে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া খাতুন। একই সংস্থার মরিয়ম আক্তার ২ মিনিট ৪২.৩২ সেকেন্ড সময় নিয়ে রূপা এবং ২ মিনিট ৪৭.৭৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করেছেন সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার।
নারীদের ৫০ মিটার ব্রেষ্টস্ট্রোকে নৌবাহিনীর মাহফুজা খাতুন শীলা ৩৫.৮৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছেন। রূপা জয়ের পথে তার সতীর্থ মরিয়ম আক্তার ৩৫.৯৭ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। মুন্সিগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার ইরফানা খাতুন ৪২.১১ সেকেন্ড সময় নিয়ে জয় করেন ব্রোঞ্জ পদক।
ছেলেদের ৫০ মিটার ব্রেষ্টস্ট্রোকে সোনা জয় করেছেন নৌবাহিনীর আরিফুল ইসলাম। সময় নিয়েছেন ৩০.০৭ সেকেন্ড। সেনাবাহিনীর সুকুমার রাজবংশী ৩০.৩৫ সেকেন্ড সময়ং নিয়ে রূপা এবং ৩১.০৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্র্ঞ্জো জিতেছেন সেনাবাহিনীর কামাল হোসেন।
নারীদের ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ১ মিনিট ৪.৭৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া খাতুন। সতীর্থ জুনাইনা আহমেদ ১ মিনিট ৫.৬০ সেকেন্ড সময় নিয়ে রৌপ্য পদক এবং সেনাবাহিনীর শারমিন সুলতানা ১ মিনিট ৮.৮৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পদক জয় করেন।
ওয়াটারপোলো প্রতিযোগিতায় সেনাবাহিনী স্বর্ণ, নৌবাহিনী রৌপ্য এবং বাংলাদেশ পুলিশ ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছে।
শিষ্যদের অসাধ্্ারণ সফলতার পর নৌবাহিনী কোচ মাহবুবুর রহমান তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন,‘ গতবার দূরপাল্লার সাঁতারে প্রস্তুতির ঘাটতির কারনে আমাদের রেজাল্ট ভাল হয়নি। ফলে আমাদের নৌবাহিনী কর্মকর্তাদের প্রচন্ড মন খারাপ ছিল। এ কারনে বাংলাদেশ গেমসের আগে আমরা প্রস্তুতিতে জোর দিয়েছিলাম।
প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করেও নৌবাহিনীর সাঁতারুরা নিজেদের প্রস্তুত করেছেন। শীতের কারণে আমরা নিজেদের প্রস্তুতি পরিকল্পনা শতভাগ অবশ্য বাস্তবায়ন করতে পারিনি। করতে পারলে এখানে টাইমিং আরোও ভাল হতো।’
বাসস/এএসজি/এমএইচসি/২০০৫/স্বব