বাসস দেশ-৪৮ : উখিয়া ও টেকনাফে পৃথক অভিযানে ৪ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

43

বাসস দেশ-৪৮
বিজিবি-ইয়াবা উদ্ধার
উখিয়া ও টেকনাফে পৃথক অভিযানে ৪ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার
ঢাকা, ৫ এপ্রিল, ২০২১ (বাসস) : বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) কক্সবাজার জেলার উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে।
বিজিবি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানানো হয়।
উখিয়া উপজেলাস্থ বিজিবি’র কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের (৩৪ বিজিবি) রেজুআমতলী বিওপির সদস্যরা আজ সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার ৪নং রাজাপালং ইউপির জলিলেরগোদা আমবাগান এলাকা হতে ২ লাখ ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে।
অভিযানকালে বিজিবি সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মায়ানমার থেকে আসা চোরাকারবারীরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। বিজিবি টহলদল তাদের জান-মাল, অস্ত্র-গোলাবারুদ এবং সরকারি সম্পদ রক্ষার্থে চোরাকারীরদের লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড পাল্টা গুলি চালালে চোরাকারবারীদের সাথে থাকা লুঙ্গী দিয়ে মোড়ানো ব্যাগ ফেলে তারা দ্রুত পাহাড়ী গহীন জঙ্গলের মধ্য দিয়ে মায়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়।
পরবর্তীতে বিজিবি সদস্যরা চোরাকারবারীদের ফেলে যাওয়া ব্যাগ তল্লাশি করে ২ লাখ ২০ হাজার পীস বার্মিজ ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। যার আনুমানিক মূল্য-৬ কোটি ৬০ টাকা।
এদিকে বিজিবি’র টেকনাফ ব্যাটালিয়নের (২ বিজিবি) সদস্যরা রোববার পৃথক অভিযান চালিয়ে ৭ কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যমানের ২ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে। এ সময় একজন ইয়াবা কারবারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
রোববার সন্ধ্যায় বিজিবি সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, টেকনাফ উপজেলার শাহপরীরদ্বীপ এলাকা দিয়ে মিয়ানমার হতে ইয়াবার ১টি বড় চালান বাংলাদেশে পাচার হতে পারে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর একটি বিশেষ টহলদল দ্রুত ওই এলাকায় অবস্থান নেয়। রোববার আনুমানিক সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সেখান থেকে নুরুল আফসার (২২) নামে একজন সন্দেহভাজনকে আটক করে।
আটককৃত ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা রোববার নাফ নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে মিয়ানমার হতে আসা একটি নৌকা হতে ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে ডাঙ্গরপাড়া এলাকায় বসবাসকারী মো. আমির হোসেনের (৩৫) বাড়ীতে রেখে আসে। টহলদলটি তাকে সঙ্গে নিয়ে দ্রুত আমির হোসেনের বাড়ি তল্লাশি করে ১টি ইয়াবা ভর্তি ব্যাগ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ব্যাগের ভিতর হতে ৪ কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যমানের ১ লাখ ৪০ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়। এ সময় বাড়ির মালিককে আটক করা সম্ভব হয়নি।
অপর দিকে রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ খারাংখালী বিওপি’র সদস্যরা মিয়ানমার হতে হস্থচালিত কাঠের নৌকা যোগে নাফ নদী পার হয়ে বেড়ীবাঁধের পূর্ব পাশে আসতে দেখে সন্দেহ হওয়ায় টহলদলটি তাদেরকে চ্যালেঞ্জ ও ধাওয়া করে। চোরাকারবারীরা দূর হতে বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকা হতে লাফ দিয়ে নেমে অন্ধকারের মধ্যে দ্রুত দৌঁড়ে পাশের গ্রামে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহলদল নদীর কিনারা হতে ৩ কোটি টাকা মূল্যমানের এক লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট আটক করতে সক্ষম হয়।
আটককৃত আসামিকে ইয়াবাসহ টেকনাফ মডেল থানায় হস্থান্তর করা হয়েছে।
বাসস/সবি/এফএইচ/২০০০/কেকে