বাসস দেশ-৬৮ : সিলেটে একদিনে ৭৪ জন করোনা আক্রান্ত

142

বাসস দেশ-৬৮
করোনা-আপডেট-সিলেট
সিলেটে একদিনে ৭৪ জন করোনা আক্রান্ত
সিলেট, ২২ মার্চ, ২০২১ (বাসস) : সিলেটে গত ২৪ ঘন্টায় ৭৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। গত টানা প্রায় তিন মাসের মধ্যে একদিনে সবচেয়ে বেশি এই করোনা রোগী শনাক্ত হলো।
চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে আজ সোমবার সকাল পর্যন্ত এক দিনে এতো বেশি রোগী শনাক্ত হননি।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।
স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেটের তথ্য মতে, সোমাবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৭৪ জনের শরীরে নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে, নতুন শনাক্তদের মধ্যে সিলেট জেলার ৬২ জন, হবিগঞ্জের ৫ জন ও মৌলভীবাজার জেলার ৭ জন বাসিন্দা। এ নিয়ে সিলেট বিভাগে করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৭৬৫ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ১০ হাজার ২০৮,সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৫৬৯,হবিগঞ্জে ২ হাজার ২২ এবং মৌলভীবাজারে ১ হাজার ৯৬৬ জন রয়েছেন।
এদিকে সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে থেকে সুস্থ হয়েছেন মাত্র ৪ জন, সুস্থ হওয়া ৪ জনের মধ্যে সকলেই সিলেট জেলার বাসিন্দা। সব মিলিয়ে সিলেট বিভাগে করোনা থেকে সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯১৯ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলার ৯ হাজার ৭৯৪ জন, সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৫২৯ জন, হবিগঞ্জে ১ হাজার ৬৮৪ জন এবং মৌলভীবাজারের ১ হাজার ৯১২ জন সুস্থ হয়েছেন। সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে একজনের মৃত্যু হয়েছে,মৃত ব্যাক্তি সিলেট জেলার বাসিন্দা। এ পর্যন্ত সিলেট বিভাগের ৪ জেলায় করোনা ভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৮২ জনে। এর মধ্যে সিলেট জেলায় মারা গেছেন ২১৮,সুনামগঞ্জে ২৬, হবিগঞ্জে ১৬ ও মৌলভীবাজারে ২২ জন।
এদিকে গত একদিনে সিলেট বিভাগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে মোট ভর্তি রয়েছেন ৪২ জন, হাসপাতালে ভর্তী হওয়া রোগীদের মধ্যে সিলেট জেলার ৪১ ও সুনামগঞ্জের ১ জন রয়েছেন।
অন্যদিকে বর্তমানে সিলেট বিভাগে মোট হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২০২ জন, এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১২৭ জন হবিগঞ্জে ৪ জন ও মৌলভীবাজার জেলার ৭১ জন রয়েছেন। এ সময়ে সুনামগঞ্জ জেলায় নতুন করে কেউ হোম কোয়ারান্টাইনে যাননি। সব মিলিয়ে বর্তমানে সিলেট বিভাগের চার জেলার মধ্যে শুধুমাত্র সিলেট জেলা ছাড়া অন্য তিন জেলায় করোনা পরিস্থিতি আগের তুলনায় এখন অনেকটা উন্নতি হয়েছে,তবে সিলেট জেলায় করোনা সংক্রমণ আবার কিছুটা বাড়তে শুরু করছে। বিভাগের চার জেলায় গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রতিদিন সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত ৩০৫ টি ভ্যাকসিন সেন্টারে করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারি ব্যবস্থাপনায় টিকা প্রয়োগ অব্যাহত রয়েছে।
বাসস/সংবাদদাতা/২১৪৮/-এমএন