বাসস দেশ-৫৮ : বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে সিলেট জুড়ে বর্ণাঢ্য আয়োজন

170

বাসস দেশ-৫৮
বঙ্গবন্ধু জন্মদিন সিলেট
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে সিলেট জুড়ে বর্ণাঢ্য আয়োজন
সিলেট, ১৬ মার্চ, ২০২১ (বাসস): স্বাধীনতার স্থপতি ও হাজার বছরেই শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে সিলেট মহানগর ও জেলাজুড়ে উৎসব পালনের বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়েছে।
মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বছর জুড়ে নানা আয়োজন থাকলেও করোনা পরিস্থিতির জন্য কিছু কর্মসূচি শিথিল করা হয়, তবে ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশের মতো সিলেট জেলার বিভিন্ন উপজেলা সহ সিলেট মহানগরীতে বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান টানা ১০ দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি ও অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে সিলেট মহানগরীর গুরত্বপূর্ণ পয়েন্ট, প্রধান প্রধান সড়ক, সরকারি বেসরকারি স্থাপনা সহ সকল বিপণীবিতান লাল-সবুজের বর্ণিল আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন উপজেলা সদর ও পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও বিভিন্ন দফতরকে সাজিয়ে তোলা হয়েছে।
রাজনৈতিক সংগঠন থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংগঠন ছাড়াও ব্যক্তিগত উদ্যোগেও আয়োজন করা হয়েছে জমজমাট অনুষ্ঠানের।এসব অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, আলোকসজ্জা, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আবৃত্তি, নাচ, গান ইত্যাদি সহ নানা আয়োজন।
চলতি মার্চ মাসের শুরু থেকেই বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে সিলেট উইমেন চেম্বার নারী উদ্যোক্তাদের উদ্যোগে নগরীর শাহী ঈদগাহে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী নারী উদ্যোক্তা সম্মেলন ও পণ্য প্রদর্শনী। এটি শুধু মেলাই নয়, সেখানে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে আগামীর নারী উদ্যোক্তা তৈরির জন্য প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানান সিলেট উইমেন চেম্বার সভাপতি স্বর্ণলতা রায়।
সিলেট সিটি কর্পোশেনের উদ্যোগে সিলেট নগর ভবন, ক্বীন ব্রিজ, কাজির বাজার সেতু, কোর্ট পয়েন্ট থেকে চৌহাট্টা সড়ক, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণের কার্যালয়, সড়ক বিভাজকসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে আলোকসজ্জা করা হয়েছে।
সিসিক সুত্র জানিয়েছে ৭ মার্চ ঐতিহাসিক দিবস থেকে শুরু করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ২৬ মার্চ পর্যন্ত ২১ দিনব্যাপি এই আলোক সজ্জায় সজ্জিত থাকবে সিলেট নগরী।
সিলেটের জেলা প্রশাসক কার্যালয়, বাংলাদেশ ব্যাংকসহ অন্যান্য সরকারি বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠানও আলোক সজ্জিত করেছে। সিলেট চেম্বার অব কমার্সে উদ্যোগে সিলেট নগরীর প্রায় সব কটি মার্কেট ও বিপণী বিতান গুলোতে আলোক সজ্জা এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে।
সিলেট জেলা প্রশাসন ও জেলা পরিষদ পৃথক ভাবে তিন দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এছাড়াও সিলেটের সামাজিক সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবি বিভিন্ন সংগঠন বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন আয়োজন করেছে।
সিলেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উৎসব মুখরভাবে উদযাপনের লক্ষে ৩ দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধু উৎসব-২০২১ এর আয়োজন করেছে সিলেট জেলা পরিষদ। ১৭ মার্চ শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে কবি নজরুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে জাতির পিতার স্মৃতিচারণ করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, নৃত্য অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ভাবনাসহ নানা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে।
সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিনহা জানান, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উপলক্ষ্যে সিলেট জেলা পরিষদ বর্ণাঢ্য আয়োজনে তিন দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধু উৎসব পালন করবে। জাতির পিতার আদর্শ ও ঐতিহ্য বর্তমান প্রজন্মের কাছে তুলে ধরাসহ বঙ্গবন্ধু’র সুযোগ্য কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার সু-মহান লক্ষ্য সিলেটবাসীর কাছে পৌঁছে দিতে এ ব্যতিক্রমী উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।
এছাড়াও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী, জাতীয় শিশু দিবস এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষ্যে সিলেট জেলা-মহানগর আওয়ামীলীগ সহযোগী ও অঙ্গ সংঠনের উদ্যোগেও নেয়া হয়েছে ব্যাপক কর্মসূচী। কর্মসূচীর মধ্যে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আগামীকাল সকাল ১১টায় সিলেট জেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। এই দিন জেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।এছাড়াও এ উপলক্ষে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ ১০দিন ব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খাঁন ও মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সিলেটে দলীয় কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে প্রতিদিন বাদ মাগরিব থেকে সিলেট নগরীর সুরমা নদীর তীরে কিনব্রীজের সামনে প্রতিদিন আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে থাকবে -একক ও দলীয় নৃত্য, একক ও সমবেত আবৃত্তি, একক ও সমবেত সঙ্গীত, বাউল সঙ্গীত ইত্যাদি। এর মধ্যে, সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগসহ দলীয় বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন এ কর্মসূচিগুলো পরিচালনা করবে। ১৭ মার্চ সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ, ১৮ মার্চ বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, ১৯ মার্চ জেলা ও মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ, ২০মার্চ জেলা ও মহানগর আওয়ামী যুবলীগ, ২১ মার্চ জেলা ও মহানগর শ্রমিক লীগ, ২২ মার্চ জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ২৩ মার্চ জেলা ও মহানগর কৃষক লীগ, ২৪ মার্চ জেলা ও মহানগর তাঁতী লীগ এবং ২৫ ও ২৬ মার্চ সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ কর্মসূচিগুলো পরিচালনা করবে। এদিকে, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ১৬ থেকে ২৬ মার্চ সিলেটের সব মার্কেটে আলোকসজ্জ্বা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিলেট চেম্বার অব কমার্স। সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের মো. শোয়েব জানান, সে আলোকে সিলেট নগরীর সকল মার্কেট ও বিপণী বিতান আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে। সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে পুরো নগর লাল সবুজের আলোয় এক রঙ্গিন উৎসব নগরীতে পরিণত হয়েছে।
বাসস/সংবাদদাতা/২১৩০/এমএবি