দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করছে বর্তমান সরকার : পলক

745

নাটোর, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ (বাসস) : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করছে বর্তমান সরকার। দেশের উন্নয়নের পাশাপাশি অসহায় মানুষের প্রয়োজনে সব সময় পাশে থাকে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে একটি মানবিক রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলছেন।
আজ শনিবার বিকেলে সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের বোয়ালিয়া স্কুল মাঠে শীতার্ত অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
বোয়ালিয়া স্কুল মাঠে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে সুকাশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আজহারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট শেখ ওহিদুর রহমান ও সুকাশ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মজিদ।
এক কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে রণবাঘা হাট-লক্ষèীখোলা ভায়া বেলোয়া রাস্তার কার্পেটিং এবং ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে
শ্রীকুন্ডা-মাদোলবাড়িয়া এইচবিবিকরণ উন্নয়ন কাজ চলছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, শেখ হাসিনা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে বিশ্বে বিভিন্ন দেশের অর্থনীতি মারাতœক হুমকির মুখে পড়লেও প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী ও সাহসী ভূমিকার কারনে বাংলাদেশের অর্থনীতি সচল ছিল। আমরা উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হয়েছি। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুসহ, মেট্রো রেল, মাতারবাড়ি তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও সমুদ্র বন্দর, কর্ণফুলী টানেল, রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মত মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। দেশের কাংখিত উন্নয়ন নিশ্চিত করে সরকার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তীকে অর্থময় করে তুলতে চায়।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোন গ্রাম আর অন্ধকার থাকবেনা। চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদনের ফলে সব গ্রাম এখন আলোকিত। গ্রামীণ জনপদে যোগাযোগ ব্যবস্থারও অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। উন্নয়নের পাশাপাশি সুশাসন নিশ্চিত করাতে গ্রামগুলো এখন শান্তির জনপদ।
পলক আরো বলেন, মুজিব শতবর্ষে পর্যায়ক্রমে দেশের নয় লাখ গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। ইতোমধ্যে প্রায় ৭০ হাজার বাড়ি নির্মাণ শেষে হস্তান্তর করা হয়েছে। সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচীর পরিধি ক্রমশ বাড়ানো হচ্ছে। করেনাকালীন সময়ে দেশের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লক্ষ লক্ষ মানুষকে প্রণোদনা প্রদান করা হয়েছে। বন্যার্ত, শীতার্ত মানুষের দূর্ভোগ লাঘবে সরকার সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকে।
প্রতিমন্ত্রী রাতে সুকাশ ইউনিয়নের জয়কুড়ী এবং বামিহালেসহ তিনটি স্থানে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এক হাজার ১০০টি কম্বল বিতরণ করেন।