বাসস দেশ-৫২ : দিনভর ভালোবাসায় সিক্ত চসিক মেয়র রেজাউল

245

বাসস দেশ-৫২
চট্টগ্রাম-রেজাউল
দিনভর ভালোবাসায় সিক্ত চসিক মেয়র রেজাউল
চট্টগ্রাম, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ (বাসস) : চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম চৌধুরী দিনভর দলীয় নেতাকর্মী, আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশি ও সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন। চান্দগাঁও থানাধীন ঐতিহ্যবাহী বহরদার বাড়িতে সকাল থেকেই মানুষের ভিড় শুরু হয়। এদের অনেকের হাতেই ছিল ফুল। কারো হাতে মিষ্টি।
নতুন মেয়রকে শুভেচ্ছা জানাতে আজ বৃহস্পতিবার সকালে বহরদার বাড়িতে আসেন সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ শুভানুধ্যায়ীরা। এরপর একে একে এসেছেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ সালাম ও সাধারণ সম্পাদক শেখ আতাউর রহমান, চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, সিডিএ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, ফটিকছড়ি আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, মহানগর, বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। তারা প্রিয় নেতাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। অনেকে মিষ্টি তুলে দেন মুখে।
নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছার জবাবে রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘আমি রাজনীতি, আন্দোলন, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ সবই করেছি। কিন্তু কখনো কোনো সন্ত্রাসী লালন-পালন করিনি, প্রশ্রয়ও দেই না। মানুষ একবেলা না খেয়ে হলেও শান্তিতে থাকতে চায়। তাই সন্ত্রাস দমন ও মাদকের বিস্তার রোধে আমি কঠোর অবস্থানে যাবো।’
পরিকল্পিত নগরী গড়ে তোলার আগ্রহ ব্যক্ত করে নতুন মেয়র বলেন, ‘আমি কোনো কাজে হাত দেয়ার আগে সে বিষয়ের বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেবো। তারা যেভাবে পরিকল্পনা দেবেন সেভাবেই আগানোর চেষ্টা থাকবে। নগরীতে নানা সমস্যা আছে। এমন কিছু বিষয় আছে যেসব বিষয়ে বিশেষজ্ঞের চেয়ে একজন খেটে খাওয়া মানুষ বেশি উপলব্ধি করেন। আমি তাদেরও মতামত নেবো। একজন রিকশাচালকেরও মেধা আছে, বুদ্ধি আছে। আর্থিক সমস্যার কারণে সে হয়তো উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে পারেনি। তার বুদ্ধিও অনেক সময় কাজে লাগতে পারে।’
সবার সহযোগিতায় আগামী পাঁচ বছর দায়িত্ব পালন করার আশা ব্যক্ত করে নবনির্বাচিত নগরপিতা বলেন, ‘আমি মহল্লা সর্দার থেকে আরম্ভ করে এলাকার গণ্যমান্য লোক সবার পরামর্শ নেবো। কার এলাকার কি সমস্যা আছে সেটা তিনিই চিহ্নিত করতে পারেন। বাইরের কেউ এসে সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা অনেক সময় সম্ভব হয় না। এলাকার মানুষই এলাকার সমস্যাগুলো ভালোভাবে দেখিয়ে দিতে পারবে। এসব সমস্যা সমাধান করার জন্য তাদের পরামর্শ গ্রহন করবো। যে পরামর্শ গ্রহণযোগ্য হবে, যে পরামর্শ ওই এলাকা পরিকল্পিতভাবে গড়ে তোলার জন্য প্রযোজ্য হবে সেটাই গ্রহণ করবো ও বাস্তবায়ন করবো।’
রেজাউল করিম বলেন, ‘নতুন প্রজন্মকে নিয়ে আমার কিছু চিন্তা আছে। আমাদের শিশুরা স্কুলে যায়, দুপুরে খেয়ে-দেয়ে ঘুমায়, বিকালে টিচারের কাছে পড়তে বসে। খেলাধুলার সময়ও নেই, জায়গাও নেই। অল্প যেটুকু সময় মেলে মোবাইল নিয়ে বসে। তাই প্রত্যেক ওয়ার্ডে খেলার মাঠ করতে না পারলেও শিশুদের খেলার উপযোগী কোনো জায়গার ব্যবস্থা করার চেষ্টা থাকবে।’
কিশোর গ্যাং, মাদকাসক্তির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে এসবের কারণ খুঁজে বের করতে হবে। কিশোররা ভালো পরিবেশ পাচ্ছে না। যদি সাংস্কৃতিক চর্চার দিকে তাদের আকৃষ্ট করা যায় তাহলে অনেকাংশে আমাদের যুবকদের কুপথ থেকে সরিয়ে আনতে পারবো। তাই নগরীরে বিভিন্ন এলাকায় সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্স গড়ে তোলার একটা চিন্তা-ভাবনা আমার আছে।’
চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন আশা প্রকাশ করেছেন, নতুন মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে ও নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় চট্টগ্রাম আধুনিক নগর হিসেবে গড়ে ওঠবে।
আজ দুপুরে বহরদার হাটের বাসভবনে নবনির্বাচিত মেয়রকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে সুজন এ আশার বাণী শোনান। মেয়রের পাশাপাশি নির্বাচিত সব ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকেও অভিনন্দন জানান তিনি।
প্রশাসক চসিক নির্বাচনকে সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সুশৃঙ্খলভাবে সম্পন্ন করায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি), বিজিবি, র‌্যাব, আনসার ভিডিপিসহ সব আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান।
বাসস/কেএস/২১০০/-শআ