বাসস সংসদ-৭ (প্রধানমন্ত্রী) : সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে অটল রয়েছে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী

154

বাসস সংসদ-৭ (প্রধানমন্ত্রী)
প্রধানমন্ত্রী সংসদ দুর্নীতি
সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে অটল রয়েছে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী
সংসদ ভবন, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সংসদে বলেছেন, সর্বস্তরে দুর্নীতি রুখতে সরকার “জিরো টলারেন্স” নীতি অব্যাহত রাখতে কঠোর ও বহুমাত্রিক উপায়ে কাজ করছে।
তিনি বলেন, “সরকার দুর্নীতি বিরোধী অবস্থানে অটল থাকায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) পূর্ণ স্বাধীনভাবে প্রভাবশালী ব্যক্তি এবং গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার বিরুদ্ধে কার্যক্রম ও তদন্ত অব্যহত রেখেছে।” সংসদে প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নোত্তর অধিবেশনে কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য পনির উদ্দীন আহমেদের এক প্রশ্নের জবাবে সংসদ নেতা এ কথা বলেন।
একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।
গত দশ বছরে দুর্নীতির বিরুদ্ধে দুদকের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, এই সময়ে দুদক ১৩ হাজার ২ টি অভিযোগের তদন্ত করেছে, ৩ হাজার ৫০৯ টি মামলা করেছে এবং ৪ হাজার ৪০৭ টি চার্জশিট দাখিল করেছে। শেখ হাসিনা বলেন, সরকারি ও আধা-সরকারির অফিস থেকে সেবা গ্রহনে জনগণের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে দুদক ১৪৪টি গণশুনানির আয়োজন করেছে। তিনি বলেন, জনগণের মধ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়াতে সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে নগর, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে মোট ৫০০ টি দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়াও শিক্ষার্থীদের মধ্যে সততা, নৈতিকতা ও মূল্যবোধ গড়ে তোলার জন্য মোট ২৭ হাজার ৭০৬ টি সততা সংঘ গঠন করেছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এডিবি ও কোরিয়ান সরকারের সহায়তায় দুদকের সাংগঠনিক সক্ষমতা জোরদারে একটি অটোমেশন প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ করছে যা কমিশনের আইটি সমর্থন সেবা সিস্টেম, ডিজিটাল আর্কাইভ, ডিজিটাল ফরেনসিক ল্যাব এবং আইপিটিভি অন্তর্ভূক্ত করবে। তিনি বলেন, সর্বোপরি দুর্নীতি রোধে সরকার বিভিন্ন আইন প্রণয়ন ও সংশোধন করছে এবং দুর্নীতি দমনে কাজ করছে।
বাসস/এমএকে/অনু-এমএবি/২১৫০/কেএমকে