ভ্যাকসিন নিয়ে যারা বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেন তাদের আগে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

218

ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ (বাসস) : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে যারা বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেন বা সমালোচনা করেন তাদের আগে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।
আজ বুধবার বিকালে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।
এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার বিকালে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এই টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানে যুক্ত হন তিনি।
অনুষ্ঠানে প্রথম পাঁচজনকে টিকা দেওয়া দেখেন প্রধানমন্ত্রী। প্রথম টিকা দেওয়া হয় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে। টিকা নিয়ে তিনি বলেন ‘জয় বাংলা’। প্রথম টিকা পাওয়া বাকি চারজন হলেন- এ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহা পরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, মতিঝিল বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মো. দিদারুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ। বুধবার এই পাঁচজনসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মোট ২৬ জনকে প্রথম দিন টিকা দেওয়া হয়েছে।
জাহিদ মালেক বলেন, ‘অনেকে ভ্যাকসিন নিয়ে অনেক সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, অনেক কথা বলেছেন। বিরূপ প্রচারণাও অনেকে করেছেন। আমরা তাদের ভ্যাকসিন দেবো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা তাদেরও ভ্যাকসিন দেবো। আমরা চাই তারা সুস্থ থাকুক এবং সমালোচনা করুক। এজন্য তাদের আগে ভ্যাকসিন দিয়ে তারপর আমরা নেবো।’
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সবাইকে আগে দিয়ে নেই, তারপর আমরা ভ্যাকসিন নেবো। আগেই যদি আমরা ভ্যাকসিন নেই তাহলে সবাই বলবে, আগে আগে নিয়ে নিলো।
আগামী ৭ তারিখে দেশব্যাপী ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হবে জানিয়ে তিনি বলেন, আশা করছি তখন অনেকেই ভ্যাকসিন নেবেন। আমাদের কাছে অনেক মন্ত্রী, এমপি, উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা টিকা গ্রহনের ইচ্ছা পোষণ করেছেন। আশা করছি তারা সেসময় ভ্যাকসিন নেবেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশে এখন ৭০ লাখ ভ্যাকসিন আছে। এই মুহূর্তে ভারত ছাড়া অনেক দেশের কাছেই পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই। মে-জুনের মধ্যে কোভেক্সের ভ্যাকসিন চলে আসবে বলে আশা করছেন তিনি।