ভেনিজুয়েলা থেকে ত্রিনিদাদগামী অভিবাসীবাহী জাহাজ ডুবিতে ১৪ জনের প্রাণহানি

370

কারাকাস, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : ভেনিজুয়েলার সরকার রোববার বলেছে যে ত্রিনিদাদ ও টোবাগো যাওয়ার পথে একটি জাহাজ ডুবিতে নিহত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। খবর এএফপি’র।
শনিবার বিকেলে কোস্টগার্ডের টহল ১১টি মরদেহ উদ্ধার করেছে এবং ” আজ, ঘটনাক্রমে সৈকতে ৩ জনের মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া গেছে, যাদের ২ জন প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও অপরজন নারী।
ত্রিনিদীদাদের কোস্ট গার্ড শনিবার বলেছে যে ভেনিজুয়েলা কর্তৃপক্ষ তাদের জানায়, ” ভেনিজুয়েলার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় সুক্র রাজ্যের উপকূলীয় শহর গিরিয়ার কাছের উপকূল থেকে প্রথমে ১১টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।” গত ৬ ডিসেম্বর ২০ জনেরও বেশি লোক নিয়ে জাহাজটি যাত্রা করে।
সুক্রের রাজ্য প্রতিনিধি ভেনিজুয়েলার বিরোধী ডেপুটি রবার্ট অ্যালকালা বলেন, অভিবাসী নিয়ে ত্রিনিদাদে যাত্রাকালে প্রায়ই অতিরিক্ত ভারবাহী নৌকাগুলো এমনভাবে বিপজ্জনক দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।
ভেনিজুয়েলায় রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সংকটের কারণে এভাবে অবৈধ পথে তারা বিদেশ যাত্রা করে।
জতিসংঘ অনুমান করেছে, সংকটের কারণে ২০১৫ সাল থেকে ৫০ লাখেরও বেশি ভেনিজুয়েলান দেশ ছেড়ে চলে গেছে, যাদের মধ্যে প্রায় ২৫হাজার ত্রিনিদাদ ও টোবাগোতে পালিয়েছে।
গিরিয়া থেকে ত্রিনিদাদে বিপজ্জনক যাত্রায় কেবলমাত্র ২০১৮ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যেই প্রায় ১০০ জন নিখোঁজ হয়েছে। ১৩ লাখ জনসংখ্যার এই দ্বীপ রাষ্ট্রটি বলেছে তারা ১৬ হাজার ভেনিজুয়েলানের রেজিস্ট্রেশন সুবিধা দিতে পারবে।