বরগুনায় ‘শতবর্ষে মুজিব’ এর মোড়ক উন্মোচন

1032

বরগুনা, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০ (বাসস): বরগুনা জেলা প্রশাসন কর্তৃক জাতির পিতার জীবনীভিত্তিক ফটো এলবাম ‘শতবর্ষে মুজিব’ এর মোড়ক উন্মোচন হয়েছে। আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে স্বাস্থ্যবিধি এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৃষ্টিনন্দন এবং দুর্লভ ছবি নিয়ে তথ্যবহুল ফটো এলবাম শতবর্ষে মুজিব এর মোড়ক উন্মোচন করেন, বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ।
মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বরগুনার সাবেক সাংসদ ও বর্তমান জেলা চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন। বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাররম হোসেন, পৌর মেয়র শাহাদাত হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জালাল উদ্দীন, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ একাত্তরের সভাপতি আনোয়ার হোসেন মনোয়ার, জেলা এনজিও ফোরামের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মোতালেব মৃধা, বরগুনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এডভোকেট সঞ্জীব দাস, লোকবেতারের পরিচালক মনির হোসেন কামাল, জেলা শিল্পকলা একাডেমির স¤পাদক এডভোকেট মুনিরুজ্জামান, প্রকাশক নাজমুল হাসান।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিব বর্ষ) উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় জেলা প্রশাসন বাস্তবায়ন করছে মুজিববর্ষে মুজিবকে জানুন। এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে “শতবর্ষে মুজিব” প্রকাশিত হয়েছে।
প্রকাশনাটির সার্বিক পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে ছিলেন জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ। ব্যবস্থাপনায় ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: আশ্রাফুল ইসলাম।
প্রকাশনাটি সংকলন করেন সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নাজমুল হাসান (ইমন)। সংকলন সহযোগিতায় ছিলেন চিত্তরঞ্জন শীল, মুদ্রণ সহযোগিতায় ছিলেন আব্দুর রাজ্জাক মৃধা ও আবু জাফর। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন মাহবুবুল আলম।
জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, “মুজিব বর্ষের প্রাক্কালে আমরা এ কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এ প্রকাশনাটিতে ১৯২০-২০২০ সাল পর্যন্ত ১০০ বছরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ব্যক্তিগত, শিক্ষাগত, রাজনৈতিক জীবনসহ আরও অনেক বিরল তথ্যের ধারাবাহিক সমাবেশ রয়েছে। সময় পরিক্রমায় গুছানো দুর্লভ চিত্রের সমাহার নিসন্দেহে বইটিকে অনন্যতা দান করেছে। বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে বইটি বঙ্গবন্ধুকে জানার এক অকৃত্রিম উৎস হবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।
বইটির সংকলক মোহাম্মদ নাজমুল হাসান (ইমন) বলেন, “হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণিল জীবনের নানা বৈচির্ত্যময় ঘটনার সচিত্র উপস্থাপন আছে এ বইয়ে। বইটি সংকলনের দায়িত্ব আমার উপর না বর্তালে জাতির পিতার জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ও দুর্লভ ছবি অজানা এবং অদেখাই থেকে যেতো। প্রতিটি ঘটনা,আলোকচিত্র, তথ্য ও বর্ণনা আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে।
বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে মহীয়সী নারী, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবকে।