বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও চাকরির পরীক্ষায় সংঘবদ্ধ জালিয়াতি চক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার

238

ঢাকা, ৯ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস) : বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় সংঘবদ্ধ জালিয়াতি চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) অগ্রানাইজড ক্রাইমের একটি দল। তাদের গতকাল বুধবার রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে-মো: ইব্রাহিম (২৮), মো: আইয়ুব আলী (বাধন), মো: মোস্তফা কামাল (২৮), মো: মনোয়ার হোসেন (৪২), মো: নরুল ইসলাম (৪৭), মো: হাসমত আলী সিকদার, হোসনে আরা বেগম, গোলাম মোহাম্মদ বাবুল ও অলিপ কুমার বিশ্বাস।
সিআইডি’র বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম বাসসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, ভর্তি কিংবা নিয়োগ পরীক্ষায় মূলত দুইভাবে জালিয়াতি হয়। একটি চক্র আগের রাতে প্রেস থেকে প্রশ্নপত্র ফাঁস করতো। আরেকটি চক্র পরীক্ষা শুরুর কয়েক মিনিট আগে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে প্রশ্নপত্র নিয়ে তা দ্রুত সমাধান করে ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে পরীক্ষার হলে পরীক্ষার্থীকে সরবরাহ করতো।
মোল্লা নজরুল বলেন,আগের রাতে প্রেস থেকে প্রশ্নফাঁস চক্রের পুরো গ্রুপকে চিহ্নিত করা গেলেও ডিভাইস চক্রটিকে সনাক্ত করা যায়নি।
তিনি বলেন, ‘পরে আমরা ডিভাইস চক্রের প্রধান অলিপ কুমার বিশ্বাস কে সনাক্ত করি। পরবর্তীতে তার পরিচয় গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলে সে গা ঢাকা দেয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘নিরলস পরিশ্রমের মাধ্যমে আমরা নিয়োগ ও ভর্তিতে ডিজিটাল জালিয়াতির এই বড় চক্রটিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি।’
বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ও বিসিএসসহ বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের মাধ্যমে জালিয়াতি করে গ্রেফতারকৃতরা কোটি কোটি টাকা ও নানা সম্পদের মালিক হয়েছে। তাদের এসব সম্পদের বিষয়ে তদন্ত চলছে। এই জালিয়াত চক্রের সদস্যরা বিলাসী জীবনযাপন করতো বলেও জানান তিনি।