চীনের পাঠানো চন্দ্রযান নমুনা সংগ্রহের কাজ সম্পন্ন করেছে

473

বেইজিং, ৩ ডিসেম্বর, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : চাঁদে পাঠানো চীনের মহাকাশ মিশনের রোবটিক যান চার দশকের মধ্যে এই পথম চাঁদের দুর্গম অঞ্চলের ভূমির নমুনা সংগ্রহের কাজ সম্পন্ন করে তা পৃথিবীতে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। চাঁদের এই অংশ সম্পর্কে এ যাবত সরাসরি কোন তথ্য সংগৃহিত হয়নি। বেইজিং বৃহস্পতিবার এ কথা জানায়।
চীন ২০২২ সাল নাগাদ মহাকাশ স্টেশন স্থাপন ও ক্রু প্রেরণ এবং চাঁদে মানুষ পাঠানোর লক্ষ্যে তাদের সামরিক বাহিনী পরিচালিত মহাকাশ কর্মসূচিতে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে।
চায়না ন্যাশনাল স্পেস এডমিনিস্ট্রেশন জানায়, চীনের পৌরাণিক কাহিনীর চাঁেদর দেবীর নাম অনুসারে মহাকাশ যানটির নাম রাখা হয়েছে চাঙ্গি। চাঙ্গি-৫ নামের এই যানটি মঙ্গলবার চাঁদে অবতরণ এবং ইতোমধ্যে চাঁদের মাটি ও পাথর সংগ্রহ সম্পন্ন করেছে।
সায়েন্স জার্নাল ‘ন্যাচার’ জানায়, যানটি চাঁদের “ওশান অব স্ট্রমস” অঞ্চলে লাভা দিয়ে গঠিত বিশাল সমতল থেকে দুই কিলোগ্রাম (৪.৫ পাউন্ড) মাটি ও পাথর সংগ্রহ করেছে।
বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, নমুনা বিশ্লেষণের মাধ্যমে চাঁদের উৎস, মূল গঠন এবং পৃষ্ঠতলে অগ্নুৎপাত সম্পর্কে জানা যাবে।
চলতি সপ্তাহে রাষ্ট্রীয় মিডিয়ায় বলা হয়, গত শতাব্দীর ৬০ ও ৭০ এর দশকে চাঁদ থেকে নমুনা সংগ্রহের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র ও সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের পরে চীন হবে তৃতীয় দেশ। ১৯৭৬ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে চাঁদে পাঠানো লুনা ২৪ মিশনের পরে চীনের এ প্রয়াস এ ধরণের প্রথম মিশন।