জয়পুরহাটে ইএফটি’র মাধ্যমে দেয়া হচ্ছে পেনশনসহ অন্যান্য ভাতা

314

জয়পুরহাট, ৩০ নভেম্বর, ২০২০ (বাসস) : সরকারের ডিজিটাল সেবায় ইলেকট্রিক ফান্ড ট্রান্সফারড (ইএফটি)এর মাধ্যমে ঘরে বসেই অবসরপ্রাপ্তরা পাচ্ছেন শতভাগ পেনশন ও উৎসব ভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা।
বিভিন্ন সরকারি দফতরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী বিশেষ করে বয়োবৃদ্ধ,পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও বিধবা যারা ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারেনা তাদের ব্যাংকে গিয়ে টাকা উত্তোলন করা কষ্টকর ছিল। হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয় বিষয়টি অনুধাবন করে প্রতিটি জেলা ও উপজেলা হিসাব বিভাগকে ডিজিটালাইজ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এর ধারাবাহিকতায় জয়পুরহাট জেলা একাউন্টস এন্ড ফিনান্স অফিস ২০১৯ সালের নভেম্বর মাস থেকে ইলেকট্রিক ফান্ড ট্রান্সফারড (ইএফটি) কার্যক্রম শুরু করে। ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে ইএফটির মাধ্যমে অবসরপ্রাপ্তদের শতভাগ পেনশন ও উৎসব ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। এতে করে অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী বিশেষ করে বয়োবৃদ্ধ, পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও বিধবারা ঘরে বসেই তাদের মোবাইল ফোনে পেনশন ও উৎসব ভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা পাচ্ছেন।
সরকারি ব্যায় শক্তিশালীকরণ কর্মসূচির আওতায় ইন্ট্রিগ্রেটেড বাজেট এন্ড একাউন্টিং সিস্টেম (আইবাস প্লাস প্লাস) সফ্টওয়ারের মাধ্যমে সকল গ্যাজেটেড কর্মকর্তাদের বেতন-ভাতাও বর্তমানে ইএফটির মাধ্যমে পরিশোধ করা হচ্ছে। এতে করে কর্মকর্তারা বেতন-ভাতা, জিপিএফ, আয়করসহ যাবতীয় তথ্য নিজেরাই আইবাস সফ্টওয়ারের মাধ্যমে দেখতে এবং প্রিন্ট করতে পারছেন। ফলে এ বিষয়ে অন্য কোথাও যেতে হচ্ছেনা এবং সময় ও অর্থ দু’টিই সাশ্রয় হচ্ছে।
সদরের দোগাছী ইউনিয়নের শহীদ সেকেন্দার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আজিজুল হক অবসর গ্রহণের পর ২০ বছর ধরে পক্ষাঘাতগ্রস্ত অবস্থায় আছেন। অবসরভাতা তোলার জন্য রিকশা ভ্যানে শুয়ে জয়পুরহাট সোনালী ব্যাংকে আসার পর দীর্ঘ লাইন কাজের দীর্ঘসূত্রিতার ফলে অনেক কষ্ট করতে হতো। ইএফটির মাধ্যমে মোবাইলে পেনশন ও ভাতা পাওয়ায় তিনি খুবই খুশি বলে জানান। অবসরপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. শান্তি প্রসাদ রায়, অবসরপ্রাপ্ত জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মাহবুব আলম, মহিপুর সরকারি কলেজের অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ, জয়পুরহাট সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক অবসরপ্রাপ্ত আব্দুল আজিজ সরকারের ডিজিটাল সেবা হিসাবে ইএফটির মাধ্যমে ঘরে বসে মোবাইল ফোনে পেনশন ও ভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা পাওয়ায় সন্তুষ্ট বলে জানান। জেলা একাউন্টস এন্ড ফিনান্স অফিসার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের ডিজিটাল সেবার অংশ হিসেবে ব্যয় শক্তিশালীকরণ কর্মসূচির আওতায় ইএফটির মাধ্যমে সেবা দিতে পারায় তিনি অত্যন্ত আনন্দিত। চলতি বছরের অক্টোবর মাস পর্যন্ত ১ হাজার ৩৬ জন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী বিশেষ করে বয়োবৃদ্ধ, পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও বিধবারা ঘরে বসেই তাদের পেনশন ও উৎসব ভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা পেয়েছেন বলেও তিনি জানান।