বাসস দেশ-৩০ : সরকারের কৃষিবান্ধব কর্মসূচির ফলে কৃষকরা উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন : খাদ্যমন্ত্রী

182

বাসস দেশ-৩০
সাধন-বীজ বিতরণ
সরকারের কৃষিবান্ধব কর্মসূচির ফলে কৃষকরা উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন : খাদ্যমন্ত্রী
নওগাঁ, ২৩ নভেম্বর, ২০২০ (বাসস): খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকারের বেশ কিছু কৃষি বান্ধব কর্মসূচী গ্রহণের কারনে কৃষকরা তাঁদের উৎপাদিত ধানসহ বিভিন্ন ফসলের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন।
আজ সোমবার জেলার পোরশা উপজেলায় কৃষকদের মাঝে সরকারী প্রণোদানার অংশ হিসেবে বিনামূল্যে সার, বীজ ও অন্যান্য কৃষি সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
পোরশা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুল রেজা।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জি. এম. ফারুক পাটোয়ারী, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ মঞ্জুর মোর্শেদ, উপজেলা কৃষি অফিসার মাহফুজ আলমসহ উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সাধন চন্দ্র মজুমদার আরো বলেন, কৃষি উৎপাদন লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা পুনরায় ধানসহ নানা জাতের কৃষি পণ্য উৎপাদনে অধিক আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। সরকারের এসব পদক্ষেপের মধ্যে সরকারিভাবে নায্যমূল্যে কৃষকদের কাছ থেকে অধিক পরিমাণে ধান ক্রয় করা এবং বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে সার ও বীজসহ কৃষি উপকরণ বিতরণ করা।
খাদ্য মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আহবানে দেশে এক ইঞ্চি জমিও যাতে ফাঁকা না থাকে সেই উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। আর প্রধানমন্ত্রীর এই আহবান বাস্তবায়নে সারাদেশে কৃষকদের মাঝে রবি মৌসুমে বোরো, গম, ভুট্টা, সরিষা, চিনাবাদাম, শীতকালীন মুগডাল, গ্রীষ্মকালীন মুগডাল ও পেঁয়াজ ইত্যাদি ফসলের বিপরীতে কেবলমাত্র নওগাঁ জেলায় ২০ হাজারেরও বেশী কৃষকদের প্রায় ২ কোটি টাকার কৃষি প্রণোদনা বিতরণ করা হচ্ছে। এ ছাড়াও জেলায় চলতি রবি মওসুমে বিভিন্ন ফসলের বিপরীতে ২ কোটি ৭০ লক্ষ টাকার কৃষি পুনর্বাসন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।
যেহেতু গম এবং ভুট্টা আমাদের বিদেশ থেকে আমদানী করতে হয় সেহেতু কোন ফাঁকা জায়গা না রেখে কৃষকদের সেসব জায়গায় ধানের পাশাপাশি বেশী বেশী করে গম ও ভুট্টার চাষ করতে পরামর্শ দেন খাদ্যমন্ত্রী।
বাসস/সংবাদদাতা/এমএআর/২১৪০/-শআ