বাসস দেশ-৫০ : সড়ক পরিবহন মন্ত্রীর ভগ্নিপতি আমানত উল্যাহ ইন্তেকাল করেছেন

189

বাসস দেশ-৫০
আমানত-ইন্তেকাল
সড়ক পরিবহন মন্ত্রীর ভগ্নিপতি আমানত উল্যাহ ইন্তেকাল করেছেন
ঢাকা, ১২ নভেম্বর ২০২০ (বাসস) : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের মেহেরুন্নেছা গ্রামের কৃতি সন্তান সাবেক ডিভিশনাল ইন্সপেক্টর অব রেজিস্ট্রেশন অফিসার মো. আমানত উল্যাহ ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নানিল্লাহি….রাজেউন)।
আজ বৃহষ্পতিবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। তিনি স্ত্রী তাহেরা বেগম ছাড়াও চার ছেলে এবং তিন মেয়ে রেখে যান।
আমানত উল্যাহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি’র ভগ্নিপতি।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভের পর কোম্পানীগঞ্জের চৌধুরীহাট বি.জামান জুনিয়র হাই স্কুলে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন মরহুম আমানত উল্যাহ। পরে ১৯৬৯ সালে ইস্ট-পাকিস্তান সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সাব-রেজিস্ট্রার পদে যোগদান করেন।জেলা রেজিস্ট্রার হিসেবে তিনি ভোলা, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুর জেলায় দায়িত্ব পালনশেষে ডিভিশনাল ইন্সপেক্টর অব রেজিস্ট্রেশন অফিসার হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন।
মরহুম আমানত উল্যাহ ছিলেন একজন শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব। চাকুরির সুবাদে তিনি ফটিকছড়ি কলেজ, ফটিকছড়ি গার্লস জুনিয়র হাই স্কুল, ফটিকছড়ি নর্থ দরুম প্রাইমারি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়া কোম্পানীগঞ্জে চৌধুরীহাট কলেজও তার উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত হয়। কোম্পানীগঞ্জের মেহেরুন্নেছা স্কুলকে মাধ্যমিক পর্যায়ে উন্নীত করতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। শিক্ষা বিস্তারের পাশাপাশি মরহুম আমানত উল্যাহ সমাজসেবায়ও অবদান রেখেছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, আগামীকাল কোম্পানীগঞ্জের নিজ বাড়িতে সকাল নয়টায় নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।
বাসস/সবি/বিকেডি/২২০০/এবিএইচ