বাসস ক্রীড়া-১৩ : এইচপির সুবিধা ও খেলোয়াড়দের প্রতিভায় মুগ্ধ র‌্যাডফোর্ড

307

বাসস ক্রীড়া-১৩
ক্রিকেট-র‌্যাডফোর্ড
এইচপির সুবিধা ও খেলোয়াড়দের প্রতিভায় মুগ্ধ র‌্যাডফোর্ড
ঢাকা, ২৯ অক্টোবর ২০২০ (বাসস) : বাংলাদেশ হাই পারফরম্যান্সের (এইচপি) প্রধান কোচ টবি র‌্যাডফোর্ডকে দেয়া সুযোগ-সুবিধা ও প্রতিভাবান খেলোয়াড়ে মুগ্ধ তিনি।
তরুণ প্রতিভা নিয়ে কাজ করতে দেয়া সুবিধাদির পর আর কিছু চাইতে পারেন না তিনি।
তিনি বলেন, যেকোন পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য খেলোয়াড় তৈরি করা তার জন্য বড় চ্যালেঞ্জের এবং এ চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে প্রস্তুত তিনি।
আজ ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাডফোর্ড বলেন, ‘ আমি এখনও পর্যন্ত সত্যিই এটি উপভোগ করছি। আমি এইচপি পারফরম্যান্স সেন্টারে সুবিধা দেখে মুগ্ধ হয়েছি। ক্লাশ নেয়ার জন্যআমাদের একটি সুন্দর কক্ষ আছে, একটি বড় ইনডোর স্কুল আছে। মাঠে সুন্দর পিচ আছে। বাইরে নেট আছে। তরুনদের কাজ করার জন্য এগুলো দুর্দান্ত সুবিধা। আমার বড় চ্যালেঞ্জ হল, যেকোন কন্ডিশনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পারফর্ম করার জন্য উচ্চ মানের তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড় তৈরি করা।’
র‌্যাডফোর্ড জানান, ইতোমধ্যে খেলোয়াড়দের পরিস্কার বার্তা দিয়েছেন, যেকোন কন্ডিশনে খেলোয়াড়দের কাছ থেকে সেরা পারফর্ম দেখতে চান তিনি। শুধুমাত্র বাংলাদেশেই নয়।
তিনি বলেন, ‘আমি অন্যান্য হাই পারফরম্যান্স দলের বিপক্ষে খেলার কথা ভাবছি। প্রথম দিন আমি খেলোয়াড়দের যা বলেছিলাম, তাহল- আমরা জানি বাংলাদেশের মাটিতে বাংলাদেশ খুবই ভালো দল। তারা নিজেদের কন্ডিশনে কীভাবে খেলতে হবে, তা জানে। এইচপিতে আমার বড় ভূমিকা হলো এমন খেলোয়াড় তৈরি করা যারা প্রথম দলেই খেলতে পারে, সেটা টেস্ট-ওয়ানডে বা টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট হোক এবং বিশ্বের যে কোনও জায়গায় পারফরমেন্স করতে পারে।’
তিনি আরও বলেন, ‘যদি তারা অস্ট্রেলিয়া যায়, পার্থের দ্রুত উইকেটে তারা মিচেল স্টার্কের মুখোমুখি হতে পারে। ইংল্যান্ডে গেলে তারা জিমি এন্ডারসনের সুইং এবং সিম খেলতে পারে। আপনি কেবলমাত্র এটি করতে পারেন যে, আপনি এসব খেলোয়াড়দের অন্য পরিবেশে নিয়ে যাবেন এবং তাদেরকে এই ধরণের পরিস্থিতিতে অভিজ্ঞতা নিতে হবে। তারা যখন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যাবে তখন মোকাবেলা করতে পারবে।’
তিনি আরও বলেন, তরুণ প্রতিভা হিসেবে বাংলাদেশে ভালো সম্পদ আছে। র‌্যাডফোর্ড বলেন, ‘আমি সত্যি এসব প্রতিভা দ্বারা মুগ্ধ।
আজ সকালে তিন বা চারজন ব্যাটসম্যান দেখেছি যারা সত্যিই ভালো করেছে। টেস্ট খেলোয়াড় হওয়ার জন্য তারা কৌশল এবং সাহসিকতা দেখিয়েছে। এটা আমাদের জন্য উৎসাহজনক।’
বাসস/এএমটি/২১১৭/স্বব