বাসস দেশ-৪২ : এমসি কলেজ পরিদর্শনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি

213

বাসস দেশ-৪২
এমসি কলেজ-পরিদর্শন
এমসি কলেজ পরিদর্শনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি
সিলেট, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ (বাসস) : এমসি কলেজ ছাত্রাবাসের ঘটনায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি ক্যাম্পাস ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
আজ বিকেলে কমিটির ৩ সদস্য সিলেটে এসে পৌঁছান। এরপর তারা এমসি কলেজে গিয়ে তদন্ত কাজ শুরু করেন। তারা ধর্ষণের ঘটনায় এমসি কলেজ কর্তৃপক্ষ গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। এর পাশাপাশি তারা ছাত্রাবাসে গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
পরিদর্শন শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে কমিটি প্রধান মো. শাহেদুল খবীর চৌধুরী ধর্ষিত তরুণী, পরিবার ও তার স্বজনদের প্রতি সমবেদনা এবং দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এমসি কলেজ দেশের শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্টান। এ রকম প্রতিষ্ঠানে গণধর্ষণ নিন্দনীয় ঘটনা। আমরা শিক্ষার সঙ্গে জড়িত, তাই আমরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। এই কলেজের ছাত্রাবাসে ধর্ষণের ঘটনায় সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা মনে করি দ্রুততম সময়ের মধ্যে জড়িতদের একটি দৃষ্টান্তমূলক সাজা হবে।
তিনি বলেন, করোনার এই সময়ে এ ধরনের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। ঘটনার সময়ে প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে হোস্টেল (ছাত্রাবাস) ব্যবস্থাপনা, নিরাপত্তা ব্যবস্থা, কলেজ কর্তৃপক্ষ এই ঘটনায় কিভাবে রেসপন্স করেছে সে জায়গায় কোন ত্রুটি আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হবে বলে তিনি জানান।
তিনি বলেন, ‘মন্ত্রণালয় আমাদের বলেছে তিন দিনের মধ্যে প্রাথমিক এবং সাত দিনের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিতে। আমরা এমসি কলেজ প্রশাসনের অনেকের সঙ্গে কথা বলেছি, ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেছি। আগামীকালও আমরা তদন্ত কাজ চালাবো।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তদন্ত কমিটি প্রধান বলেন, যেহেতু বিষয়টি স্পর্শকাতর, তাই নির্যাতিতা নারীর সঙ্গে কথা বলাটা সহজ হবে না। তবু আমরা চেষ্টা করব কথা বলার। তদন্তের স্বার্থে এটি করা দরকার। তিনি বলেন, এ বিষয়ে তদন্তের সার্থে যা যা দরকার সবগুলো বিষয় খতিয়ে দেখা হবে।
এর আগে সিলেট এমসি কলেজ ( মুরারি চাঁদ) কলেজে গৃহবধূ তরুনীকে ধর্ষণের ঘটনায় সোমবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) শাহিদুল কবির চৌধুরীর নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের এই কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
বাসস/এমএএম/এমএসএইচ/২৩৪০/এবিএইচ