রিয়াল মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারাল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

304

মিয়ামি, ১ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস/এএফপি) : অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রের ঝটিকা সফরে হাসির রেখা ফুটে উঠলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ হোসে মরিনহোর মুখে। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রে মৌসুম-পূর্ব প্রীতি ম্যাচের টুর্নামেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপের ম্যাচে সাবেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে মরিনহোর বর্তমান ক্লাব ইউনাইটেড। এদিন অনুষ্ঠিত আরেক ম্যাচে ইতালীয় ক্লাব রোমা ৪-২ গোলে হারিয়েছে স্পেনের আরেক জায়ান্ট বার্সেলোনাকে।
মিয়ামিতে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধেই দুই গোলের লীড নিয়ে এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। অ্যালেক্সিস সানচেজ ও এন্ডার হেরেরার গোল ছিল দলটির জন্য প্রেরনাদায়ক। তবে প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমেই করিম বেনজেমার গোলে ব্যবধান কমিয়ে আনে রিয়াল মাদ্রিদ।
খেলা শেষে মরিনহো বলেণ, ‘এই সফর থেকে আমার শিক্ষা নেবার কিছুই নেই। কারণ, আমি জানি এন্ডার হেরেরা, হুয়ান মাতা এবং অ্যালেক্সিস সানচেজ কেমন। আমি জানি এই ছেলেরা খুবই তরুণ, তাদের গড়ে উঠতে সময় দিতে হবে। জানি, জয়ের জন্য তারা সবকিছুই করবে। ম্যাচের শেষ ১৫ মিনিট ছিলো খুবই বিপজ্জনক। কারণ, এ সময় তারা (রিয়াল) টনি ক্রোস, অ্যাসেনসিও এবং ইস্কোকে মাঠে নামিয়েছিল। ভেবেছিলাম আমার তরুণরা এসব তারকাদের প্রতিরোধ করতে পারবে না। কিন্তু আমরা পেরেছি। এটিই হচ্ছে দলগত উদ্দীপনা। প্রিমিয়ার লীগে আমাদের প্রথম দুই বা তিন সপ্তাহ খুবই কঠিন হবে। কারণ, আমরা পরিপূর্ণ প্রস্তুতি গ্রহণ করতে পারিনি।’
মিয়ামির হার্ড রক স্টেডিয়ামের ৬৪ হাজার ১৪১ জন দর্শকের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ১৮তম মিনিটে সানচেজের গোলে লীড পায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ২৭তম মিনিটে হেরেরা গোল করে দ্বিগুণ ব্যবধানে পৌঁছে দেন প্রিমিয়ার লীগের জায়ান্টদের। তবে প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমেই করিম বেনজেমা গোল করে ব্যবধান কমিয়ে আনেন রিয়াল মাদ্রিদের। আপাতদৃষ্টিতে তারা ফের লড়াইয়ে ফিরে আসবে বলে মনে হলেও দ্বিতীয়ার্ধে সেটি সম্ভব হয়নি। ফলে ২-১ ব্যবধানে পরাজিত হয় লা লীগার জায়ান্টরা।
টেক্সাসের ডালাসে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বার্সেলোনা দুই দুইবার লীড পাওয়ার পরও বড় ব্যবধানে হারতে বাধ্য হয় সিরি-এ লীগের ক্লাব রোমার কাছে। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে রাফিনহার গোলে এগিয়ে যায় মেসিবিহীন বার্সেলোনা। ৩৫তম মিনিটে অবশ্য গোলটি পরিশোধ করে রোমাকে সমতায় ফিরিয়ে আনেন এল সারাবি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ৪৯তম মিনিটে ম্যালকমের গোলে ফের এগিয়ে যায় কাতালানরা। তবে ৭৮তম মিনিটে সেটিও পরিশোধ করে রোমাকে সমতায় ফিরিয়ে আনেন ফ্লোরেঞ্জি। ম্যাচের শেষভাগে মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে পর পর গোল করে রোমার বিজয় নিশ্চিত হয়। ম্যাচের ৮৩ ও ৮৬তম মিনিটে রোমার হয়ে গোল দু’টি করেন যথাক্রমে ক্রিস্টানটে ও পেরত্তি। পেনাল্টি থেকে ম্যাচের শেষ গোলটি করেছেন পেরত্তি।