ভারতে করোনা টেস্ট বাড়ানো হয়েছে

255

নয়াদিল্লী, ২৬ আগস্ট, ২০২০ (বাসস) : ভারত করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে টেস্ট বৃদ্ধি করেছে। এখন প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৮ লাখ ২৫ হাজার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হচ্ছে। করোনায় দেশটিতে এ পযর্ন্ত ৩২ লাখ ৩৪ হাজারের বেশি লোক আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৫৯ হাজার ৪৪৯ জন।
ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের একটি সূত্র আজ এখানে জানিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারের মূলনীতি হচ্ছে, প্রতিদিন ১০ লাখ করোনা টেস্ট করা। সরকারের এই নীতির আলোকে রাজ্য সরকারগুলো এখন করোনা টেস্ট বাড়িয়েছে।
অপর একটি সরকারি সূত্রে বলা হয়, ভারত করোনা টেস্ট আরো বৃদ্ধি করছে। সরকার মনে করছে, আক্রান্তদের সময়মতো টেস্ট করা এবং এই টেস্টের পরিমান বাড়ানো করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় সূত্রে আরো বলা হয়েছে, করোনা টেস্ট সহজলভ্য করতে সারাদেশে ডায়াগোনস্টিক ল্যাবের সংখ্যা বাড়ানো এবং টেস্টের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। পরীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, প্রতি মিলিয়নে আক্রান্তের সংখ্যা ২৭ হাজার ২৮৪ জন বৃদ্ধি পেয়েছে।
সরকারি সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘন্টায় সারাদেশে ৮ লাখ ২৩ হাজার ৯৯২ জনের করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩ কোটি ৭৬ লাখ ৫১ হাজার ৫১২ জনে।
তবে দিল্লী রাজ্য সরকার করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে প্রতিদিন বর্তমান টেস্ট ২০ হাজার থেকে বাড়িয়ে দ্বিগুন করার ঘোষণা দিয়েছে।
সরকারি সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৬৭,১৫১ জন আক্রান্ত হওয়া দিয়ে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩২ লাখ ৩৪ হাজার ৪৭৪ জন। পাশাপাশি গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরো ১হাজার ৫৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় এ পযর্ন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫৯ হাজার ৪৪৯ জনে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ি সারাবিশ্বে এ পযর্ন্ত ২ কোটি ৩৬ লাখ ৯৭ হাজার ২৭৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এরমধ্যে মারা গেছে ৮ লাখ ১৪ হাজার ৪৩৮ জন।