বাজিস-৮ : ঠাকুরগাঁওয়ে ৬৮ হাজার তিনশ’ ৫৬ হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

270

বাজিস-৮
ঠাকুরগাঁও- আমন চাষ
ঠাকুরগাঁওয়ে ৬৮ হাজার তিনশ’ ৫৬ হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ
ঠাকুরগাঁও, ৯ আগস্ট ২০২০ (বাসস): জেলায় চলতি মৌসুমে ৬৮ হাজার তিনশ’ ৫৬ হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। গত বছর জেলায় ৬০ হাজার ৩১০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ করা হয়েছিল।
ইতিমধ্যেজেলার ৫১ ই্উনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় কৃষকেরা আমন ধান লাগানোতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। রোববার সরেজমিন দেখা গেছে, গরম আর বৃষ্টিপাত উপেক্ষা করে সন্ধ্যা অবধি আমনের জমি প্রস্তুত ও চারা রোপণ কাজ করছেন তারা। কেউবা জমিতে হাল চাষ দিচ্ছেন। কেউ জমির আইলে কোদাল পাড়া কিংবা জৈব সার দিতে ব্যস্ত। কেউ সেচের জন্য নালা নির্মাণ কিংবা পাম্পের বা শ্যালো মেশিনের জন্য ঘর তৈরি করছেন। আবার অনেকে তৈরি জমিতে পানি সেচ দিয়ে ভিজিয়ে রাখছেন। আনুসঙ্গিক কাজ শেষ করে কেউবা বীজতলা থেকে চারা তুলে তা রোপণ করছেন।
সদর উপজেলার বড়গাঁও গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম জানান, তিনি এবার বিআর-৫১ জাতের ধান লাগাচ্ছেন দুইএকর জমিতে। গতবার এই জাতের ফলন ভালো হওয়ায় এবারো তিনি এই ধান আরোও দুইবিঘা জমিতে বেশি আবাদ করছেন।
সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের কচুবাড়ি গ্রামের বিজয় রায় জানান, বোরো ধানের ন্যায্য দাম পাওয়ায় তারা এবার আমন ধান চাষের প্রতি গূরুত্ব দিচ্ছেন, আগের চেয়ে বেশি জমিতে ধান চাষ করছেন। তিনি জানান, এবার প্রায় ১৫ বিঘা পরিমাণ জমিতে আমন ধানের চাষাবাদ করছেন।
ঠাকুরগাঁওয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ আফতাব হোসেন জানান, জেলায় চলতি মৌসুমে ৬৮ হাজার তিনশ’ ৫৬ হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। অনুকূল আবহাওয়ায় কৃষকেরা এখন আমন ধানের চারা লাগানোর ব্যস্ত সময় পার করছেন। এবার প্রচুর বৃষ্টিপাত হওয়ায় অতিরিক্ত সেচ দিতে হবে না, ফলে সেচের খরচও কমবে।
তিনি জানান, জেলার কৃষি দপ্তর থেকে কৃষকদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।
বাসস/সংবাদদাতা/২২১৭/এমকে