নদী ভাঙ্গন-রোধে পর্যায়ক্রমে স্থায়ী বাাঁধ নির্মাণ করা হবে : এনামুল হক শামীম

363

মাদারীপুর, ৭ আগস্ট, ২০২০ (বাসস) : পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ.কে.এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, সরকার স্থায়ী (দীর্ঘমেয়াদী) প্রকল্প প্রণয়নের ওপর এখন অনেক বেশী গুরুত্ব দিচ্ছে।
তিনি বলেন, নদী ভাঙ্গন-রোধে সারাদেশে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা নির্ধারণ করে, পর্যায়ক্রমে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণে দীর্ঘমেয়াদী প্রকল্প হাতে নেয়া হবে।
এনামুল হক শামীম শুক্রবার সকালে মাদারীপুরের শহর রক্ষা বাঁধের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শনের পর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলায় ৮ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বলেন, মাদারীপুরের শিবচরেও ৩শ’ ৯৪ কোটি টাকার প্রকল্প এখন টেন্ডারের অপেক্ষায় রয়েছে।
তিনি বলেন,‘আগামী বর্ষার আগেই মাদারীপুর শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। এ বাঁধ কিভাবে টেকসই ও মজবুত করা যায় সে-লক্ষ্যে ইতিমধ্যে একটি টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের বাস্তবায়ন-কাজ তদারকি করবে।’
নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের কঠোর হুঁশিয়ারি জানিয়ে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বলেন,এ ব্যাপারে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।
তিনি বলেন, বালু উত্তোলনকারীরা যত শক্তিশালী লোকই হোক না কেন, নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করলে তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে বলেও উপমন্ত্রী উল্লেখ করেন।
মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খান, জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) মহাপরিচালক এ এম আমিনুল হক, মাদারীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী পার্থ প্রতিম সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট ওবায়দুর রহমান খান, পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।