ঢাকা জেলার আশেপাশের নদীর পানি সমতলে হ্রাস

234

ঢাকা, ২৭ জুলাই, ২০২০ (বাসস) : ঢাকা জেলার আশেপাশের নদীসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা আগামী ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
অপরদিকে, গঙ্গা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। অপরদিকে, পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে।যা আগামী ৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
আজ বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও উত্তরপূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে। যা আগামী ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর ও ভারত আবহাওয়া অধিদফতরের গাণিতিক আবহাওয়া মডেলের তথ্য অনুযায়ী আগামী ৪৮ ঘন্টা থেকে ৭২ ঘন্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ, হিমালয়, আসাম ও মেঘালয় প্রদেশে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস আছে। এই সময়ে উত্তরাঞ্চলের এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ নদীসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে।
আগামী ২৪ ঘন্টায় কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, জামালপুর, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ি, শরিয়তপুর, ঢাকা এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে।
দেশের পর্যবেক্ষণাধীন ১০১টি পানি সমতল স্টেশনের মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে ৩৭ টির, হ্রাস ৬৪টির, বন্যা আক্রান্ত জেলার সংখ্যা ১৭ টির,বিপদসীমার উপরে নদীর সংখ্যা ২০ টি, বিপদসীমার উপরে স্টেশনের সংখ্যা ৩০ টি।
সারাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত হয়েছে,জকিগঞ্জ ৮৫ মিলিমিটার, চিলমারী ৮২ মিলিমিটার, লালাখাল ৭২ মিলিমিটার, সুনামগঞ্জ ৭০ মিলিমিটার, কুড়িগ্রাম ৬১ মিলিমিটার এবং রংপুর ৫৮ মিলিমিটার।