জার্মান বিশ্বকাপ জয়ী তারকা আন্দ্রে শুরলের অবসর

186

বার্লিন, ১৮ জুলাই ২০২০ (বাসস) : পেশাদার ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষনা দিলেন ২০১৪ বিশ্বকাপ জয়ী জার্মান উইঙ্গার আন্দ্রে শুরলে। মাত্র ২৯ বছর বয়সে ফুটবলকে বিদায় জানালেন বিশ্বকাপ জয়ী এ তারকা।
এর আগে বুধবার সাবেক এই চেলসি খেলোয়াড়ের সাথে পারষ্পরিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে চুক্তি বাতিল করে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। তার সাথে ডর্টমুন্ডের বর্তমান চুক্তির মেয়াদ আরো এক বছর বাকি ছিল। অবসর প্রসঙ্গে শুরলে বলেছেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই এই পরিকল্পনা মাথায় ছিল। একটি ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে হলে নির্দিষ্ট কিছু ভূমিকা থাকে, নাহলে সেখানে ক্ষতি হওয়াটাই স্বাভাবিক। একইসাথে আরেকটি কাজ পাওয়াও কঠিন হয়ে পড়ে। ফুটবলে মাঠের পারফরমেন্সই একমাত্র ভরসা। এটা না থাকলে একজন খেলোয়াড়ের দূর্বলতা ধরা পড়ে যা নিয়ে বেশীদিন টিকে থাকা যায়না। আমার আর সাধুবাদের প্রয়োজন নেই।’
২০১৪ সালের বিশ^কাপ ফাইনালে অতিরিক্ত সময়ে শুরলের ক্রস থেকেই মারিও গোটশের একমাত্র গোলে আর্জেন্টিনাকে পরাজিত করে শিরোপা জিতেছিল জার্মানী। শুরলে জানিয়েছেন ২০১৪ ব্রাজিল বিশ^কাপটা ছিল তার ক্যারিয়ারের সেরা সময়। শুরলে বলেন, ‘ক্লাবে থাকাকালীন প্রতিদিনই যেন আমাকে পালাতে হয়েছে। আমি আর ফুটবল খেলতে চাইনা। আমি পুরোপুরি শেষ হয়ে গেছি।’
হোসে মরিনহোর অধীনে ২০১৩ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের সময়টাও মোটেই ভাল কাটেনি বলেই স্বীকার করেছেন শুরলে।
২০১৫ সালে তিনি উল্ফসবার্গে যোগ দেবার মাধ্যমে বুন্দেসলিগায় ফিরে আসেন। এর এক বছর পর ৩০ মিলিয়ন ইউরোতে ডর্টমুন্ডে যোগ দেন। কিন্তু সেটা মোটেই সফল কোন চুক্তি ছিল না। মূল একাদশে খেলতে ব্যর্থ হবার পাশাপাশি ইনজুরির কারনে তার ক্যারিয়ার হুমকির মুখে পড়ে। ২০১৮/১৯ মৌসুম ফুলহ্যামে কাটানোর পর গত বছর ধারে স্পার্তাক মস্কোতে খেলেছেন। ২০১৭ সালে ইনজুরির কারনে দুইবার মাঠর বাইরে চলে যাবার পর তখনই অবসরের কথা চিন্তা করেছিলেন। জার্মান জাতীয় দলের জার্সি গায়ে শুরলে ৫৭ ম্যচে ২২টি গোল করেছেন। অবসরের পর ভবিষ্যত নিয়ে এখনো কিছু চিন্তা করেননি বলে জানিয়েছেন এই তারকা উইঙ্গার।