বাসস বিদেশ-৪ : আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে মধ্যস্থতার আলোচনায় প্রস্তুত রাশিয়া

100

বাসস বিদেশ-৪
আর্মেনিয়া-আজারবাইজান-সংঘাত-রাশিয়া-কূটনীতি
আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে মধ্যস্থতার আলোচনায় প্রস্তুত রাশিয়া
মস্কো, ১৮ জুলাই, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : রাশিয়া শুক্রবার জানিয়েছে, তারা সাবেক সোভিয়েত প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে শান্তি আলোচনার মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত রয়েছে। এ দুই দেশের সীমান্ত বরাবর সংঘর্ষ বেড়ে যাওয়ার পর রাশিয়া এমন কথা জানালো। খবর এএফপি’র।
ক্রেমলিন মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ জানান, সাউথ ককেসাসের এ দুই দেশের মধ্যে সংঘাত বেড়ে যাওয়ায়
প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন এবং রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছেন। গত সপ্তাহে আজারবাইজার ও আর্মেনিয়া এ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
পেসকভের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স পরিবেশিত খবরে বলা হয়, পুতিনের পাশাপাশি রুশ সরকারের সিনিয়র কর্মকর্তারা অস্ত্রবিরতি চুক্তি উভয় পক্ষের জোরালোভাবে মেনে চলা অতি প্রয়োজন বলে
গুরুত্বারোপ করেন এবং তারা মধ্যস্থতা প্রচেষ্টা চালাতে প্রস্তুত রয়েছেন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।
আজারবাইজানের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় বিচ্ছিন্নতাবাদী নাগরনি কারাবাখ অঞ্চল প্রশ্নে এ দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ দশকের পর দশক ধরে সংঘাতে লিপ্ত রয়েছে। ১৯৯০ সালের যুদ্ধে আর্মেনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদীরা অঞ্চলটি দখল করে নেয়। এ যুদ্ধে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়।
১৯৯৪ সাল থেকে এ অচলাবস্থার একটি স্থায়ী সমাধানে রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের মধ্যস্থতার বিভিন্ন আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে। অতি সম্প্রতি রোববার এ দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।
এতে উভয় পক্ষ পরস্পরের গোলাবর্ষণ শুরু করাকে দায়ী করে। আর এই গোলাবর্ষণ বিক্ষিপ্তভাবে কয়েক দিন ধরে অব্যাহত থাকে। এতে মোট ১৭ জন নিহত হয়।
আর্মেনিয়া সরকারের মুখপাত্র আর্টসরান হোভহানিসিয়ান শুক্রবার জানান, রাতে যুদ্ধ থেমে যায়।
বর্তমানে সেখানের পরিস্থিতি অনেকটা শান্ত রয়েছে। এদিকে আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সেখানের ‘সার্বিক পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ রয়েছে।’
বাসস/এমএজেড/১২৫৫/জেহক