বাসস দেশ-৩ : বরগুনা সদর হাসপাতালে চারটি হাইফ্লো ন্যাজাল কেনুলা মেশিন স্থাপন

205

বাসস দেশ-৩
হাইফ্লো-ন্যাজাল-স্থাপন
বরগুনা সদর হাসপাতালে চারটি হাইফ্লো ন্যাজাল কেনুলা মেশিন স্থাপন
বরগুনা, ১৮ জুলাই, ২০২০ (বাসস) : কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা সেবায় বরগুনা সদর হাসপাতালে চারটি হাইফ্লো ন্যাজাল কেনুলা মেশিন চালু হয়েছে।
স্থানীয় মানুষের চাঁদার টাকায় কেনা ও আওয়ামী লীগ নেতা মশিউর রহমান শিহাবের দেয়া আরেকটিসহ মোট দু’টি মেশিন জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ ও সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ুন শাহিন খানের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া নাভানা গ্রুপ একটি মেশিন দিয়েছে। সম্প্রতি স্থানীয় মানুষের টাকায় কেনা প্রথম মেশিনটিও সদর হাসপাতালে স্থাপন করা হয়।
‘আমাদের জন্য আমরা’ শিরোনামে সাংবাদিক মুশফিক আরিফের ফেসবুকে নেবুলা মেশিন কেনার জন্য একটি পোস্ট দেয়া হয়েছিলো। পরে বরগুনার লোকবেতারে এ ব্যাপারে ব্যাপক প্রচারণা চালানো হয়। সাংবাদিক আবদুল আলীম হিমু, হাসানুর রহমান ঝন্টু, মনির হোসেন কামাল ও মুশফিক আরিফসহ বরগুনাবাসীর আহবানে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন থেকে টাকা আসতে থাকে। মহতি এ কাজে বরগুনার প্রতিবন্ধি ভিক্ষুকরা পর্যন্ত এগিয়ে এসেছে। সাংবাদিক মুশফিক আরিফ জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১৬৯ জন ব্যক্তি ও আটটি সংগঠনের পক্ষ থেকে ১০ লাখ ৬৩ হাজার ১৬০ টাকা পাওয়া গেছে। দু’টো মেশিন কিনতে ৯ লাখ টাকা খরচ হয়েছে। এছাড়াও দু’টি অক্সিজেন কনসেট্রেটর, ৫টি অটোমেটিক বিপি মেশিন, ৭টি পালস্ অক্সিমিটার, দুটি ইনফ্রা থার্মোমিটার কিনে দেয়া হয়েছে। বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মশিউর রহমান সিহাব পাঁচটি ইউপিএস দেবার আশ^াস দিয়েছেন।
বরগুনার সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ুন শাহিন খান জানিয়েছেন, হাইফ্লো ন্যাজাল কেনুলা মেশিন, আর মেডিসিন স্পেশালিস্ট ডা. কামরুল আজাদের ভূমিকায় বরগুনা সদর হাসপাতালে করোনা রোগীদের আস্থার জায়গা তৈরী হয়েছে। শ^াসকষ্টের কারনে রোগীদের আর দুর্ভোগ পোহাতে হবেনা। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন চারটি কেনুলা মেশিনের মাধ্যমে রোগীদের শতভাগ অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া যাবে।
বাসস/সংবাদদাতা/১২১০/কেজিএ