কুমিল্লায় করোনায় আক্রান্ত ৭৪ পুলিশ সদস্য সুস্থ : প্লাজমা দান ২৭

185

কুুমিল্লা (দক্ষিণ), ১৬ জুলাই, ২০২০, (বাসস): দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত কুমিল্লায় ১৮৬ জন পুলিশের সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছেন ৭৪ জন। এছাড়া সুস্থ ২৭ জন পুলিশের ব্লাড ব্যাংকে প্লাজমা দান করেছেন। তবে কেউ মারা যাননি।
কুমিল্লা পুলিশ সুপার কার্যালয় জানায়, আক্রান্ত সদস্যরা জেলা পুলিশের বিভিন্ন বিভাগে এবং বিভিন্ন থানায় কর্মরত ছিলেন। আক্রান্তদের মধ্যে ১১ পরিদর্শক, ২৫ এসআই, ৩৬ এএসআই, একজন নায়েক ও ১১৩ জন কনস্টেবল রয়েছেন। এর বাইরেও সিভিল আটজন সদস্যও রয়েছেন। এদের মধ্যে দুজন সুস্থ হয়েছেন।
জেলা পুলিশের ইউনিট ভিত্তিক আক্রান্তের সংখ্যা হচ্ছে- পুলিশ লাইন্সে ১৫ জন, ট্রাফিকে পাঁচ, কোর্ট পুলিশে দুই, ডিবিতে চার, কন্ট্রোল রুমে পাঁচ, অপরাধ শাখায় দুই, পুলিশ হাসপাতালে এক, কোতোয়ালি থানায় আট, সদর দক্ষিণ থানা ছয়, চৌদ্দগ্রাম থানায় চার, চান্দিনা থানায় এক, বুড়িচং থানায় ৯, ব্রাহ্মণপাড়া থানায় পাঁচ, বরুড়া থানায় সাত, লাকসাম থানায় সাত, মনোহরগঞ্জ থানায় তিন, নাঙ্গলকোট থানায় ২০, দাউদকান্দি থানায় ১৭, হোমনা থানায় চার, মেঘনা থানায় দুই, তিতাস থানায় ছয়, দেবিদ্বার থানায় ১৭, মুরাদনগর থানায় ৯, বাঙ্গরা থানায় ১৬ ও লালমাই থানায় ১১ জন। সুস্থ হওয়া ৭৪ জন পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ৩১ জনের এন্টিবডি টেস্ট করা হয়। এদের মধ্যে ২৭ জনের রক্তে এন্টিবডি পজিটিভ (করোনাভাইরাস প্রতিরোধী ক্ষমতা) পাওয়া যায়।
কুমিল্লা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুর রহমান বাসসকে বলেন, পুলিশ সদস্যরা ঢাকার রাজারবাগ বাংলাদেশ পুলিশ হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে প্লাজমা দান করেছেন। তাদের দেয়া প্লাজমা করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহৃত হবে। প্লাজমা দানকারীদের মধ্যে দুজন পরিদর্শক, দুজন এসআই, চারজন এএসআই এবং ১৯ জন কনস্টেবল রয়েছেন।