এস্পানিওলকে পরাজিত করে আবারো শীর্ষে উঠে এলো রিয়াল মাদ্রিদ

226

মাদ্রিদ, ২৯ জুন ২০২০ (বাসস) : তলানির ক্লাব এস্পানিওলকে ১-০ গোলে পরাজিত করে বার্সেলোনাকে দুই পয়েন্টের ব্যবধানে পিছনে ফেলে আবারো লা লিগা টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচটিতে আরো একবার ফরাসী তারকা করিম বেনজেমার যাদু দেখেছে মাদ্রিদ সমর্থকরা।
ভ্যালেন্সিয়ার বিপেক্ষে বেনজেমার ভলি মৌসুমের সেরা গোলের তকমা পেতেই পারে। আর গতকাল সম্ভবত তিনি মৌসুমের সেরা এসিস্টটি করেছেন। ৪৫ মিনিটে তার বাড়িয়ে দেয়া দুর্দান্ত ব্যাকহিলে কাসেমিরো কোন ভুল করেননি। আর এই এক গোলেই মাদ্রিদের পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিশ্চিত হয়। শনিবার সেল্টা ভিগোর সাথে বার্সার ২-২ গোলের ড্রয়ে মাদ্রিদের সামনে সুযোগ ছিল নিজেদের আবারো শীর্ষে ওঠার । আর সেই সুযোগটি পুরোপুরি কাজে লাগিয়েছে গ্যালাকটিকোরা। গত আট বছরে দ্বিতীয় লিগ শিরোপা স্বপ্ন এখন দেখতেই পারে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।
ম্যাচ শেষে বেনজেমা বলেছেণ, ‘এই জয়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমি এটা বলবো না যে আমরা বার্সেলোনার দিকে তাকিয়ে থাকি না, অবশ্যই আমরা সেটা করি। এখন আর বেশী ম্যাচ বাকি নেই। সে কারনে প্রতিটি ম্যাচই ফাইনাল ম্যাচ।’
এদিকে মাদ্রিদ বস জিদান জানিয়েছেন এডেন হ্যাজার্ড গোঁড়ালিতে আঘাত পেয়েছেন। তবে সেটা খুব বেশী গুরুতর নয় বলেও তিনি স্বীকার করেছেন। মঙ্গলবার ক্যাম্প ন্যুতে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। ইন-ফর্ম এ্যাথলেটিকোর বিপক্ষে পরাজয় এড়ানো এখন বার্সার সামনে বড় চ্যালেঞ্জ। নাহলে বৃহস্পতিবার গেটাফের বিপক্ষে হোম ম্যাচে মাদ্রিদের সামনে সুযোগ থাকবে আরো এগিয়ে যাবার। এই নিয়ে করোনার পর শুরু হওয়া লি লিগায় পাঁচ ম্যাচে পাঁচটিতেই জয় তুলে নিয়েছে মাদ্রিদ।
এ্যাথলেটিকোর পর বার্সার প্রতিপক্ষ পুনর্জাগতির ভিয়ারেল। এরপর স্থানীয় প্রতিদ্বন্দ্বী এস্পানিওল। নতুন কোচ ফ্রান্সিসকো রুফেতের অধীনে এস্পানিওল যে বার্সাকে ছেড়ে কথা বলবে না তা তারা মাদ্রিদের বিপক্ষেও প্রমান করেছে। ক্লাবের স্পোর্টিং ডাইরেক্টর হিসেবে কাজ করা করা রুফেতে এবারের মৌসুমে এস্পানিওলের চতুর্থ কোচ হিসেবে কাজ করছেন। শনিবার আবেলারডো ফার্নান্দেজকে বরখাস্ত করে তার স্থানে রুফেতেকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। রুফেতের দায়িত্ব এখন এস্পানিওলকে যতটা সম্ভব উপরে টেনে তোলা। নয় পয়েন্টের ব্যবধানে রেলিগেশন জোনে রয়েছে এস্পানিওল।
বেনজেমার দুর্দান্ত এসিস্টে আগে দিনের আরেক ম্যাচে সান্তি কাজোরলার আরেকটি অসাধারণ এসিস্টে জেরার্ড মোরেনো ২-০ গোলে ভ্যালেন্সিয়াকে পরাজিত করেছে ভিয়ারেল।
কাসেমিরো বলেছেন, ‘এই গোলের জন্য পুরো কৃতিত্বই আমি বেনজেমাকে দিতে চাই। এসিস্ট ছিল সত্যিই অসাধারণ ছিল। আমরা সবাই জানি সে দলের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। গোলের আগে তার দক্ষতা আরো একবার আমার সামনে দেখা দিয়েছিল। সে কারনেই তার কাছ থেকে এই ধরনের একটি এসিস্টই আশা করেছিলাম। সে আমাকে দিয়ে গোল করাতে চেয়েছে, আমি সেটা কাজে লাগিয়েছি।’
আরসিডিই স্টেডিয়ামে গত তিন সপ্তাহে সম্ভবত এটাই মাদ্রিদের সবচেয়ে আকর্ষণীয় জয় ছিল। কালকের ম্যাচে নি:সন্দেহে সেরা খেলোয়াড় ছিলেন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরো। ম্যাচ সেরাও নির্বাচিত হয়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান। প্রথমার্ধে অবশ্য বেশ কয়েকটি সুযোগ নষ্ট করে ম্যাচে এগিয়ে যেতে পারেনি স্বাগতিক এস্পানিওল। সার্জি ডারডারের শট কোনমতে ব্লক করেন দানি কারভাহাল। মাদ্রিদ কিছুটা ধীর গতিতে খেললেও তারাও সুযোগ সৃষ্টি করেছে। কাসেমিরোর ক্রস থেকে সার্জিও রামোসের হেড অল্পের জন্য বাইরে চলে যায়।
দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য বেনজেমার কাছে পুরোপুরি পরাস্ত হতে থাকে এস্পানিওল। প্রথম মিনিটেই বেনেজমার ব্যাকহিলে কাসেমিরো দারুন ফিনিশে মাদ্রিদকে এগিয়ে দেন। ৮৭ মিনিটে ম্যাচের সবচেয়ে ভাল সুযোগটি আসে এস্পানিওলের সামনে। ফ্রি-কিক থেকে লিনড্রো কাবরেরা সুযোগটি নষ্ট করেন।