করোনায় স্থগিত হলো বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজও

191

ঢাকা, ২৩ জুন ২০২০ (বাসস) : আগামী আগস্ট-সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দুই টেস্টের সিরিজটি স্থগিত করা হয়েছে। বাংলাদেশের সফরে দু’ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আসার কথা ছিল কিউইদের। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি না ঘটায় সমোঝতার মাধ্যমে সিরিজটি স্থগিত করে দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ড।
আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ দুই ম্যাচের সিরিজটি স্থগিতের বিষয়টি আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।
এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি জানায়, করোনার কারনে সমোঝতার মাধ্যমে বিসিবি ও নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি) আসন্ন সিরিজটি স্থগিত করেছে। সিরিজের সূচি নতুন করে সাজাতে এখন একত্রে কাজ করবে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।
এ ব্যাপারে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘কোভিড-১৯ ভাইরাস পরিস্থিতি এখন যে পর্যায়ে আছে তাতে আগস্টে পুর্ণাঙ্গ সিরিজ আয়োজন করা খুবই চ্যালেঞ্জিং বিষয়। তাই খেলোয়াড়, স্টাফ, সমর্থক ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় নিয়ে আমরা কোনো রকম ঝুঁকি নিচ্ছি না।’
তিনি আরও বলেন, ‘এই পরিস্থিতিতে এই সিরিজটি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি ও এসজেডসি। আমরা বুঝতে পারছি, দুই দলের ক্রিকেটার-কর্মকর্তা ও সমর্থকদের জন্য এটি হবে ভীষণ হতাশার। তবে আমি এনজেসিকে ধন্যবাদ জানাই, এমন সিদ্ধান্তের পেছনের কারণটা বুঝতে পারায়।’
করোনার কারনে এ নিয়ে বাংলাদেশ দলের তিনটি সিরিজ স্থগিত হলো। পাকিস্তানের মাটিতে সিরিজের বাকী এক টেস্ট-ওয়ানডে স্থগিত হয়। যা হবার কথা ছিলো গত এপ্রিলে। এরপর গত এপ্রিলে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফরও স্থগিত করা হয়। চলতি মাসে দুই টেস্ট খেলতে বাংলাদেশে আসার সূচি ছিল অসিদের। গত মে মাসে স্থগিত হয় আয়ারল্যান্ড সফরও। এখনও অনিশ্চিয়তায় দুলছে বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফর।
বাংলাদেশে এ পর্যন্ত করোনাভাইরসে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ১৯ হাজারের বেশি। মৃত্যুবরণ করেছে ১৫৪৫ জন। সুস্থ হয়েছে ৪৭ হাজারের বেশি।