বাসস দেশ-৫ : কুষ্টিয়ায় ১৯টি রেড জোন ওয়ার্ডে লকডাউন শুরু

67

বাসস দেশ-৫
রেড জোন-লকডাউন
কুষ্টিয়ায় ১৯টি রেড জোন ওয়ার্ডে লকডাউন শুরু
কুষ্টিয়া, ২৩ জুন, ২০২০ (বাসস) : করোনা আক্রান্ত ও সংক্রমণ রোধে কুষ্টিয়া পৌরসভার পুর্বের ৮টি ওয়ার্ডের সাথে ৪ এবং ১৫ নং ওয়ার্ডসহ ১০টি ওয়ার্ড এবং ভেড়ামারা পৌরসভার ৭টি ওয়ার্ডের সাথে আরও ২টি ওয়ার্ডসহ ৯টি ওয়ার্ড এবং বাহিরচর ও চাঁদগ্রাম ইউনিয়নকে রেড জোন ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সাথে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হওয়ায় সেটি রেড জোনের পরিবর্তে ইয়োলো জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।
গতকাল রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপ-সচিব কাজী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে রাতে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ্য করা হয়েছে, সংক্রামক রোগ ( প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ, নির্মুল) আইন-২০১৮’র সংশ্লিষ্ট ধারার ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক কোভিড-১৯ রোগের সংক্রমণ প্রতিরোধ এবং নিয়ন্ত্রণে রোগের চলমান ঝুঁকি বিবেচনার জন্য জীবনযাত্রা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে উল্লেখিত এলাকাকে শর্তসাপেক্ষে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হলো।
উল্লেখিত এলাকাগুলো হলো কুষ্টিয়া পৌরসভার ১,৩,৪,৫,৬,৭.৮,১৫,১৮ ও ২০ নং ওয়ার্ড এবং ভেড়ামারা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডসহ বাহিরচর ও চাঁদগ্রাম ইউনিয়নকে রেড জোন ঘোষণা করা হয়েছে। এ সব এলাকায় মুল প্রবেশ পথে লাল পতাকা চিহ্নসহ লকডাউন করা হয়েছে। উল্লেখিত এলাকায় কোভিড আক্রান্ত রোগী ও তার আশপাশ এলাকায় বসবাসকারী প্রতিবেশী ঘরের বাইরে অসাতে পারবে না। তবে হাইওয়ে সড়ক, জনগুরুত্বপুর্ণ প্রতিষ্ঠান, ওষুধ, সংবাদ পত্র, সাংবাদিক, স্বাস্থ্যকর্মি, আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা এর আওতামুক্ত থাকবে।
কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের এনডিসি আবু রাসেল জানান, রাত ৯টার পরে এ প্রজ্ঞাপন আমাদের হাতে এসেছে। জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেনের নির্দেশে জেলা প্রশাসনের ফেসবুকসহ সংশ্লিষ্ট ওয়েব পোর্টালে এ প্রজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ১৮ জুন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা আক্রান্ত রোগী ও জনসংখ্যার বিবেচনায় কুষ্টিয়া পৌরসভার ৮টি ওয়ার্ড, একটি ইউনিয়ন এবং ভেড়ামারা উপজেলা পৌরসভার ৭টি ওয়ার্ড ও দুটি ইউনিয়নকে রেড জোন ঘোষণা করে এলাকায় লকডাউনের সিন্ধান্ত নেয়।
বাসস/সংবাদদাতা/১৩১৫/কেজিএ