করোনার বিপক্ষে লড়াইয়ে ঐতিহাসিক বিশ্বকাপ ব্যাটটি নিলামে তুলবেন সাকিব

340

ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২০ (বাসস) : প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ের আর্থিক সহায়তার জন্য গেল ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলা ব্যাটটি নিলামে তুলবেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।
বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমও তার প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরির ব্যাট নিলামে তোলার সিদ্বান্ত নেন। তার সিদ্বান্তের দু’দিন পর বিশ্বকাপে খেলা ব্যাট নিলামের তোলার সিদ্বান্ত নিলেন সাকিব। একই সময় বাংলাদেশের আরেক সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলও আর্থিক সহায়তার জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা নিজের অনেক স্মৃতি বিজড়িত ঐতিহাসিক ব্যাটটি নিলামে তোলার সিদ্বান্ত নিয়েছেন।
২০০৫ সালে কার্ডিফে আশরাফুলের ঐ সেঞ্চুরিতে ওয়ানডে ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমবারের মত হারিয়েছিল বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐ জয়, পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলো এবং বাংলাদেশকে শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবে ভাবতে শুরু করে বিশ্বের অন্যান্য দেশ।
ইতোমধ্যে ‘সাকিব আল ফাউন্ডেশনের’ মাধ্যমে অসহায়-দুস্থদের সহায়তা করছেন সাকিব। ফেসবুকে সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন পেইজ থেকে লাইভ সেশনে, ব্যাটের সাথে খেলোয়াড়দের সরঞ্জামাদি জার্সি ও অন্যান্য জিনিসপত্র নিলামে তোলার আহ্বান জানিয়েছিলেন সাকিব। যাতে অসহায়-দুস্থদের আর্থিকভাবে সহায়তা করা যায়।
সাকিবের লাইভ সেশনের পর মুশফিকের ব্যাট নিলামে তোলার সিদ্বান্তটি এসেছিলো।
মঙ্গলবার এই পেইজ থেকে দ্বিতীয় লাইভ সেশনে ছিলেন দুই বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা পেয়ে এক বছর মওকুফ পাওয়া সাকিব। ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে দু’টি সেঞ্চুরি ও পাঁচটি হাফ-সেঞ্চুরিতে আট ম্যাচে ৮৬ দশমিক ৫৭ গড়ে টুর্নামেন্টের তৃতীয় সর্বোচ্চ ৬০৬ রান করেছিলেন সাকিব। বল হাতেও ১১টি উইকেট নিয়েছিলেন সাকিব। এছাড়া বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ৫শ রান ও ১০ উইকেট শিকারের নজির গড়েন সাকিব।
বিশ্বকাপে খেলা ব্যাটকে ভাগ্যবান বলে অ্যাখায়িত করেছিলেন সাকিব। তিনি বলেন, পুরো বিশ্বকাপ জুড়েই নির্দিষ্ট ্কটি ব্যাটই ব্যবহার করেছিলেন এবং এটি ভালো রাখতে টেপ ব্যবহার করেছিলাম।
সাকিব বলেন, ‘আমি আগেই বলেছিলাম, আর্থিক সহায়তার জন্য নিলামে ব্যাট তোলার ইচ্ছা আমার ছিলো। যে ব্যাটটি আমার সবচেয়ে বেশি প্রিয়। আমি ভালো কিছু ইনিংস খেলেছি এবং বিশ্বকাপে কিছু গুরুত্বপূর্ণ রান করেছিলাম।’
তিনি আরও বলেন, ‘পুরো বিশ্বকাপ জড়ে, আমি এই ব্যাটটিই ব্যবহার করেছি এবং এমনকি এটি ভালো রাখতে টেপ ব্যবহার করেছিলাম। বিশ্বকাপের আগে এই ব্যাটটি দিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণও ইনিংসও খেলেছিলাম। এই ব্যাট দিয়ে ক্যারিয়ারে আমি ১৫শ রান করেছি। তাই এটি আমার প্রিয় ব্যাট।’